Begin typing your search above and press return to search.

এনআরসির বিস্তারিত ডাটা সম্পর্কে দিশপুর এখনও সম্পূর্ণ অন্ধকারে

এনআরসির বিস্তারিত ডাটা সম্পর্কে দিশপুর এখনও সম্পূর্ণ অন্ধকারে

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  30 Aug 2019 9:22 AM GMT

গুয়াহাটিঃ চূড়ান্ত রাষ্ট্ৰীয় নাগরিক পঞ্জি(এনআরসি)প্ৰকাশে আর একদিনও বাকি নেই। ৩১ আগস্ট বেলা ১১টায় প্ৰকাশিত হচ্ছে বহু প্ৰতীক্ষিত এনআরসি। এনআরসির রাজস্ব সমন্বয়ক প্ৰতীক হাজেলার কাছ থেকে নাগরিক পঞ্জির বিস্তারিত তথ্য কবে নাগাদ হাতে আসবে তা নিয়ে রীতিমতো বিভ্ৰান্ত অসম সরকার। সুপ্ৰিমকোর্ট ইতিপূর্ব ঘোষণা করেছিল,আধারের মতো এনআরসির পুরো ডাটা সম্পূর্ণ নিরাপদ হওয়ার পরই তা রাজ্য সরকার,কেন্দ্ৰীয় সরকার ও রেজিস্ট্ৰার জেনারেল অফ ইন্ডিয়ার হাতে তুলে দেওয়া হবে। তবে এরজন্য কোনও নির্দিষ্ট সময়সীমা বেঁধে দেওয়া হয়নি।

সুপ্ৰিম কোর্টের মুখ্য বিচারপতি রঞ্জন গগৈ এবং বিচারপতি আরএফ নরিম্যানকে নিয়ে গঠিত দুই সদস্যের একটি বেঞ্চ গত ১৩ আগস্ট বলেছিল ‘এনআরসির ডাটা সুরক্ষা ও নিরাপত্তার ব্যাপারে রাজ্য সমন্বয়কের তরফে জানানো আবেদনের প্ৰেক্ষিতেই কোর্ট আধারের ডাটা সুরক্ষার মতো এনআরসির ডাটার নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করার নির্দেশ দিয়েছিল। এরপরই এনআরসিতে নাম অন্তর্ভুক্তি ও নাম ছুটদের পূর্ণ তালিকা রাজ্য,কেন্দ্ৰীয় সরকার ও রেজিস্ট্ৰার জেনারেলের হাতে তুলে দেওয়া যাবে। ‘আমরা আরও বলেছিলেম নাম অন্তর্ভুক্ত হওয়া লোকেদের একটা পরিপূরক তালিকা এনআরসি সেবা কেন্দ্ৰ,সার্কল অফিস এ রাজ্যের জেলা ম্যাজিস্ট্ৰেটের কার্যালয়ে প্ৰকাশ করার জন্য। আমরা আরও নির্দেশ দিয়েছিলাম,৩১ আগস্ট নাম ছুটদের তালিকা পরিবার ভিত্তিক প্ৰকাশ করতে’।

রাজ্যের গৃহ ও রাজনৈতিক বিভাগের একজন বরিষ্ঠ কর্মকর্তা দ্য সেন্টিনেলকে বলেন,‘রাজ্য সরকার চাইছে এনআরসির বিস্তারিত ডাটা শীঘ্ৰই তাদের হাতে আসা প্ৰয়োজন। এর কারণ হচ্ছে যে সব মানুষের নাম চূড়ান্ত এনআরসিতে ঠাঁই পাচ্ছে না তারা বিদেশি ট্ৰাইবুনালে আবেদন জানানোর জন্য ১২০ দিন সময় পাচ্ছেন। ‘রাজ্য সমন্বয়ক কবে পর্যন্ত রাজ্য সরকারের হাতে এনআরসি বিস্তারিত ডাটা তুলে দেবেন সে ব্যাপারে আমরা সম্পূর্ণ অন্ধকারে রয়েছি’।

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ এনআরসি-র প্ৰকাশ ঘিরে ১৪টি স্পর্শকাতর জেলায় জোরদার নিরাপত্তা

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: Soil Erosion causing miseries to people in Gohpur

Next Story