ন্যাশনাল

আফগানিস্তানের প্ৰলয় ধুলো ঝড় ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে উত্তর ভারতে আছড়ে পড়তে পারে

আফগানিস্তানে
Source: Google

নয়াদিল্লিঃ আফগানিস্তানের সিসটান বেসিনে প্ৰবল ধুলো ঝড় ঘনীভূত হচ্ছে। যেকোনও সময় এই ধুলো ঝড় গোটা উত্তর ভারতে আছড়ে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। কেন্দ্ৰীয় ভূ-বিজ্ঞান মন্ত্ৰকের বিজ্ঞানীরা সম্ভাব্য ধুলো ঝড় সম্পর্কে গোটা উত্তর ভারতকে সতর্ক করে দিয়েছেন। খবরে বলা হয়েছে আফগানিস্তানে যে ধুলো ঝড়ের উৎপত্তি হয়েছে তার প্ৰকৃতি খুবই ভয়ঙ্কর। অনুমান করা হচ্ছে,এই ধুলো ঝড় প্ৰবল গতিতে উত্তর ভারতের রাজ্যগুলোতে আছড়ে পড়তে পারে। আফগানিস্তানে উদ্ভূত এই ধুলো ঝড় রাজস্থানের থর মরুভূমি হয়ে দুর্দমনীয় গতিতে প্ৰবাহিত হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এমনটা হলো রাজধানী দিল্লির ধুলো দূষণ দ্ৰুত বৃদ্ধি পাবে।

এমনটা যদি সত্যি সত্যিই ঘটে তাহলে রাজধানীতে জীবন অত্যন্ত দুর্বিষহ হয়ে উঠবে,সা সহ্য সীমার বাইরে চলে যাবে। প্ৰচণ্ড দাবদাহ ও অত্যধিক তাপমাত্ৰার জন্য দিল্লিবাসীদের এমনিতেই নাভিশ্বাস উঠেছে। তাই এর মধ্যে ধুলো ঝড় বইলে পরিস্থিতি কী দাঁড়াবে তা সহজেই অনুমেয়। বিভাগটি জানিয়েছে,সোমবার বিকেলে ওই ধুলো ঝড় করাচিকে ধুলোর আস্তরণে ঢেকে ফেলতে দেখা গেছে। আজ বিকেলের মধ্যে ধুলো ঝড় আহমেদাবাদ শহরে আছড়ে পড়ার সম্ভাবনা ব্যক্ত করা হয়েছে রিপোর্টে।

ভূবিজ্ঞান মন্ত্ৰকের দূষণ ফোরকাস্টিং সংস্থা সাফার তাদের এক বিবৃতিতে বলেছে,আফগানিস্তানের সিস্টান বেসিনে উৎপত্তি হওয়া ধুলো ঝড়ের গতি ভয়ঙ্কর রূপ নিয়েছে। দুদিনের মধ্যে এই ধুলো ঝড় দিল্লি সহ উত্তর ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে দাপিয়ে বেড়ানোর আশঙ্কা রয়েছে। এরমধ্যে থর মরুভূমির বালু ঝড়ের তাণ্ডবে বাড়তি মাত্ৰা যোগ করার সম্ভাবনাও উড়িয়ে দেওয়া যায় না।

ধুলো ঝড় দিল্লিতে আছড়ে পড়ার আগে প্ৰচণ্ড দাবদাহ ও উষ্ণ প্ৰবাহে এই শহরে দূষণের মাত্ৰা চরমে উঠেছে। এরআগে ২০১৭ সালের নভেম্বরে ইরাক,কুয়েত ও সৌদি আরব থেকে ছুটে আসা ধুলো ঝড় দিল্লির বুক দূষণে ভরিয়ে দিয়েছিল।