Begin typing your search above and press return to search.

প্ৰাক্তন অর্থমন্ত্ৰী অরুণ জেটলি চলে গেলেন

প্ৰাক্তন অর্থমন্ত্ৰী অরুণ জেটলি চলে গেলেন

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  24 Aug 2019 11:36 AM GMT

নয়াদিল্লিঃ বরিষ্ঠ বিজেপি নেতা এবং প্ৰাক্তন অর্থমন্ত্ৰী অরুণ জেটলি শনিবার নতুন দিল্লির এইমসে মারা গেছেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়েস হয়েছিল ৬৬ বছর। এইমসের হাসপাতালে বিশিষ্ট রাজনীতিক জেটলিকে লাইফ সাপোর্ট দিয়ে রাখা হয়েছিল তাঁর অবস্থা অত্যন্ত সঙ্কটজনক হয়ে পড়ায়। জেটলির ক্ষেত্ৰে এক্সট্ৰাকর্পোরিল মেমব্ৰেইন অক্সিজেনাইশন(ইসিএমও)প্ৰয়োগ করা হয়েছিল। যে সব রোগীর হার্ট ও লাঞ্জ কোনটাই কাজ করছে না তাদের ক্ষেত্ৰেই ইসিএমও ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতারা জেটলিকে দেখতে এইমসে ছুটে আসেন। এইমসে ভর্তি হবার পর অনেক নেতা হাসপাতালে এসে তাঁর সঙ্গে দেখা করে গেছেন। প্ৰধানমন্ত্ৰী নরেন্দ্ৰ মোদি,রাষ্ট্ৰপতি রামনাথ কোবিন্দ,স্বরাষ্ট্ৰমন্ত্ৰী অমিত শাহ,উত্তর প্ৰদেশের প্ৰাক্তন মুখ্যমন্ত্ৰী তথা বহুজন সমাজ পার্টির(বিএসপি)সভানেত্ৰী মায়াবতী,কেন্দ্ৰীয় মন্ত্ৰী পীউস গোয়েল,জম্মু ও কাশ্মীরের রাজ্যপাল সত্যপাল মালিক,কংগ্ৰেস নেতা অভিষেক সিংভি এবং জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া,উত্তর প্ৰদেশের মুখ্যমন্ত্ৰী যোগী আদিত্যনাথ এইমসে এসে জেটলির স্বাস্থ্যের খোঁজ নিয়ে গিয়েছিলেন। অসমের অর্থমন্ত্ৰী হিমন্তবিশ্ব শর্মা জেটলির আকস্মিক মৃত্যুতে এক টুইটে প্ৰতিক্ৰিয়া ব্যক্ত করে বলেছেন,‘আধুনিক ভারতের একজন সেরা স্থপতি,প্ৰতিষ্ঠিত আইনজীবী,উল্লেখযোগ্য সাংসদবির,মহান প্ৰশাসক,চমৎকার ব্যক্তিত্বের অধিকারী অরুণ জেটলি আজ আর আমাদের মধ্যে নেই। এটা চরম দুঃখের মুহূর্ত। আমি তাঁর বিদেহী আত্মার চিরশান্তি কামনা করছি’।

https://twitter.com/himantabiswa/status/1165161408826228736

প্ৰতিরক্ষা মন্ত্ৰী রাজনাথ সিং প্ৰাক্তন সহকর্মীর মৃত্যুতে গভীর শোক প্ৰকাশ করেছেন। এক টুইটে রাজনাথ বলেন,‘দেশের অর্থনীতিকে অন্ধকার থেকে তুলে এনে সঠিক দিশায় এগিয়ে নিতে জেটলি যা করেছেন তার জন্য তিনি চিরকার স্মরণে থাকবেন। বিজেপি অরুণজির উপস্থিতি মিস করবে। শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্ৰতি আমি আন্তরিক সমবেদনা জানাচ্ছি’।

https://twitter.com/rajnathsingh/status/1165161641555550208

১৯৫২ সালে ২৮ ডিসেম্বর জন্ম হয়েছিল জেটলির। তিনি ছিলেন একজন বিশিষ্ট রাজনীতিক ও দেশের সফল নেতা। জেটলি এর আগে অটল বিহারী বাজপেয়ী এবং নরেন্দ্ৰ মোদি সরকারে অর্থ,প্ৰতিরক্ষা,কর্পোরেট বিষয়ক,কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্ৰি এবং আইন ও বিচার বিভাগের ক্যাবিনেট মন্ত্ৰীর দায়িত্ব সামলেছিলেন। সুপ্ৰিমকোর্টের একজন বরিষ্ঠ আইনজীবী ছিলেন তিনি। স্বাস্থ্যজনিত কারণে এবার মোদি সরকারে যোগ দেওয়া থেকে তিনি বিরত থাকেন।

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ প্ৰাক্তন কেন্দ্ৰীয় অর্থমন্ত্ৰী অরুণ জেটলি চলে গেলেন

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: Religious procession by Sikh community people arrives in Biswanath Chariali

Next Story