Top
Begin typing your search above and press return to search.

শুদ্ধ এনআরসি-র জন্য সুপ্ৰিমকোর্টে যাচ্ছিঃ গগৈ

শুদ্ধ এনআরসি-র জন্য সুপ্ৰিমকোর্টে যাচ্ছিঃ গগৈ

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  4 Sep 2019 11:31 AM GMT

গুয়াহাটিঃ সুপ্ৰিমকোর্টের নির্দেশ অনু্যায়ী রাজ্যে রাষ্ট্ৰীয় নাগরিক পঞ্জি(এনআরসি)নবায়নের কাজ হয়নি। রাজ্যের প্ৰাক্তন মুখ্যমন্ত্ৰী তরুণ গগৈ এই মন্তব্য করে বলেছেন,এনআরসি শুদ্ধ করার দাবি জানিয়ে আমি সুপ্ৰিমকোর্টে একটি পিটিশন দাখিল করবো। তাঁর মতে,এনআরসিতে যথেষ্ট ভুল থেকে গেছে।

মঙ্গলবার দিশপুরে মিনিস্টার কলোনিতে নিজের সরকারি বাড়িতে এক সাংবাদিক সম্মেলনে বক্তব্য রাখছিলেন তিনি। গগৈ বলেন,‘আমি সর্বোচ্চ আদালতে একটি পিটিশন দাখিল করবো এবং প্ৰশ্ন তুলবো এনআরসি নবায়ন সুপ্ৰিম কোর্টের নির্দেশে হয়েছে কি’?

‘আমি বলতে চাই যে সুপ্ৰিম কোর্টের নির্দেশ মেনে এনআরসি নবায়নের কাজ হয়নি। প্ৰেস মিটে দেশের মুখ্য বিচারপতি রঞ্জন গগৈর উদ্দেশে প্ৰাক্তন মুখ্যমন্ত্ৰী বলেন, এনআরসি নবায়ন আপনার নির্দেশ মাফিক হয়েছে কিনা সেটা আপনার পর্যালোচনা করে দেখা উচিত। কারণ এনআরসি নবায়ন প্ৰক্ৰিয়ায় আপনার নামও জড়িয়ে আছে। এনআরসি নবায়ন নিয়ে আপনি খুশি কি না’?

গগৈ বলেন,এনআরসি নবায়নের জন্য সুপ্ৰিম কোর্ট শুধু নির্দেশই দিয়েছিল। তারা এনআরসি রূপায়ণের অথরিটি নয়। এনআরসি রূপায়ণ কর্তৃপক্ষ হচ্ছে কেন্দ্ৰীয় ও রাজ্য সরকার। আমার হিসেব অনু্যায়ী এনআরসিতে ভুল রয়েছে। এই সমস্ত ভুল ত্ৰুটিগুলো শুধরোতে হবে। ব্যাপক সংখ্যক হিন্দু বাঙালি,রাজ্যের স্থায়ী বাসিন্দা,গোর্খা,হিন্দি ভাষী মানুষ,খ্ৰিস্টান,উপজাতি,মুসলিম এবং অন্যান্যদের নাম চূড়ান্ত এনআরসি থেকে বাদ পড়েছে। নবায়িত এনআরসির বিরুদ্ধে কেন সর্বত্ৰ ক্ষোভ ও প্ৰতিবাদের ঝড় উঠেছে এটাই তার প্ৰধান কারণ। মুখ্যমন্ত্ৰী সর্বানন্দ সোনোয়াল এবং অর্থমন্ত্ৰী হিমন্তবিশ্ব শর্মার ভুলের জন্য লক্ষাধিক ভারতীয়কে বিদেশি হিসেবে দেখানো হয়েছে-অভিযোগ করেন গগৈ। তাদের ওপর যে দায়িত্ব পড়েছিল তা পালনে তারা ব্যর্থ হয়েছেন বলে উল্লেখ করেন তিনি। এখন সরকার চাইছে এই সমস্ত ভারতীয়দের বিদেশি ট্ৰাইবুনালে পাঠাতে। গগৈর প্ৰশ্ন,যতক্ষণ না তাদের বিদেশি ঘোষণা করা হচ্ছে ততক্ষণ বিদেশি ট্ৰাইবুনালে তারা যাবেন কেন? লক্ষাধিক ভারতীয়কে বিদেশি সাজানো হয়েছে-এটা কার ভুল? প্ৰশ্ন তোলেন তিনি। এনআরসির রাজ্য সমন্বয়ক প্ৰতীক হাজেলাও নবায়নের কাজে জড়িয়ে আছেন। তাই তারও শাস্তি হওয়া উচিত-বলেন গগৈ।

কেন্দ্ৰীয় সরকারকে লক্ষ্য করে গগৈ বলেন,এখন স্বরাষ্ট্ৰমন্ত্ৰী অমিত শাহ মুখে কুলুপ এঁটেছেন। এনআরসির খসড়া যখন প্ৰকাশিত হয়েছিল সেই সময় শাহ বলেছিলেন,অসমে ৪০ লক্ষের বেশি বিদেশি চিহ্নিত হয়েছে। চূড়ান্ত এনআরসি প্ৰকাশের পর শাহর ওই দাবি কতটা কৃতিত্ব বা অকৃতিত্বের দাবি রাখে? আমি মনে করি তাঁর ওই দাবি কৃতিত্বহীনতারই নজির’। এখন এনআরসি শুদ্ধ করার দায়িত্ব এমএইচএ-র ওপরই বর্তায়।

প্ৰাক্তন মুখ্যমন্ত্ৰী আরও বলেন,সরকার এখন বলছে তারা এনআরসি নবায়ন সম্পর্কে কিছুই জানে না। কি করে তারা এটা বলতে পারে? সরকারের কি কোনও গোয়েন্দা নেটওয়র্ক নেই? মুখ্যসচিব,পুলিশ প্ৰধান এবং জেলাশাসকরা তো রয়েইছেন। মন্ত্ৰী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা এখন এনআরসি সম্পর্কে প্ৰতিক্ৰিয়া ব্যক্ত করছেন। কিন্তু আশ্চর্যের বিষয় হচ্ছে,মুখ্যমন্ত্ৰী সোনোয়াল কিন্তু এই ইস্যুতে নীরব রয়েছেন। মুখ্যমন্ত্ৰী নিজেই যেহেতু গৃহমন্ত্ৰী তাই প্ৰতিক্ৰিয়া আসা উচিত ছিল তাঁর তরফ থেকে। গগৈ বলেন,‘হিমন্ত গৃহমন্ত্ৰী নন তাই এক্ষেত্ৰে আমি মুখ্যমন্ত্ৰীর ভূমিকারই সমালোচনা করব’।

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ অবৈধ অনুপ্ৰবেশকারীদের আটক করার আর্জি মুসলিম সংগঠনের

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: Assam NRC Final List: AASU addresses Media | The Sentinel News | Assam News

Next Story