ব্ৰেকিংনিউজ

গ্ৰেনেড বিস্ফোরণঃ সন্দেহভাজন অভিযুক্ত রাজগুরু,জাহ্নবীকে দশ দিনের পুলিশ হেফাজতে রাখার নির্দেশ

গ্ৰেনেড বিস্ফোরণ

গুয়াহাটিঃ গুয়াহাটিতে গ্ৰেনেড বিস্ফোরণের ঘটনায় জড়িত সন্দেহভাজন দুই অভিযুক্তকে শুক্ৰবার কামরূপের(মেট্ৰো)মুখ্য বিচারবিভাগীয় ম্যাজিস্ট্ৰেটের আদালতে হাজির করানো হয়। বিস্ফোরণে জড়িত সন্দেহে আটক করা অভিযুক্ত প্ৰাণময় রাজগুরু ও অভিনেত্ৰী জাহ্নবী শইকিয়াকে বৃহস্পতিবার মহানগরীর পাঞ্জাবাড়ি এলাকার একটি ভাড়া বাড়ি(ঘর নং ১০)থেকে আটক করা হয়। অরবিন্দ রাজখোয়ার নেতৃত্বাধীনে

আলফার আলোচনাপন্থী গোষ্ঠীর সন্দেহভাজন সদস্য প্ৰাণময় রাজগুরু আজ সাংবাদিকদের বলেন,‘আমি আমার রাজ্যের সার্বভৌমত্বের পক্ষে রয়েছি। এই বিদ্ৰোহ চলবে,আমার দেশ,আমার সম্প্ৰদায় আমার ইগো,অসম কখনো ভারতের অংশ ছিল না এবং ভবিষ্যতেও থাকবে না। নিজের দেশকে ভালবাসা কোনও অপরাধ নয়,এটাকে অপরাধ বলা হলে আমি বলবো হ্যাঁ,আমি একজন অপরাধী’।

বৃহস্পতিবার ওই ভাড়া বাড়ি থেকে উদ্ধার হওয়া বিস্ফোরক সামগ্ৰী সম্পর্কে রাজগুরু বলেন,ওগুলো কোনও বিস্ফোরক নয়।

‘আমি বিদ্ৰোহী আন্দোলনের সঙ্গে জড়িয়ে থাকলেও নাশকতার সঙ্গে নই’-উল্লেখ করেন রাজগুরু।

এখানে উল্লেখ করা যেতে পারে যে,রাজগুরু এবং জাহ্নবী শইকিয়ার বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির অধীনে  গীতানগর থানায় দুটো মামলা নথিভুক্ত করা হয়েছে।

সিজেএম কোর্ট উভয় সন্দেহভাজন অভিযুক্তকে ১০ দিন পুলিশি হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিয়েছে।