Begin typing your search above and press return to search.

আহমেদাবাদ,পুরি সহ সারা দেশে পালিত জগন্নাথ দেবের রথযাত্ৰা

আহমেদাবাদ,পুরি সহ সারা দেশে পালিত জগন্নাথ দেবের রথযাত্ৰা

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  4 July 2019 1:36 PM GMT

আহমেদাবাদ,পুরিঃ গুজরাটের আহমেদাবাদ এবং ওড়িশার পুরি সহ দেশের বিভিন্ন স্থানে আজ জগন্নাথ দেবের রথযাত্ৰা ভক্তি ও নিষ্ঠা ভরে ধুমধামের সঙ্গে পালিত হয়। গুয়াহাটি মহানগরী সহ অসমের বিভিন্ন স্থানে এদিন বের করা হয় প্ৰভু জগন্নাথ দেবের রথযাত্ৰা। গুয়াহাটিতে ইসকনের তরফ থেকে বের করা রথযাত্ৰায় ভক্তপ্ৰাণ মানুষের ঢল নামে। রথের দড়ি টেনে পুণ্যার্জনে এগিয়ে আসেন অজস্ৰ মানুষ। স্থানে স্থানে বসে রথের মেলা। যোরহাটেও রথযাত্ৰা পালন করা হয় হরিসভা ও ইসকনের তরফ থেকে।

আহমেদাবাদের জামালপুরে এবার ভগবান জগন্নাথ দেবের ১৪২তম রথযাত্ৰা উৎসব পালিত হচ্ছে। জগন্নাথ দেবের মন্দির থেকে তিনটি সুসজ্জিত রথে ভগবান জগন্নাথ,বলরাম ও সুভদ্ৰার বিগ্ৰহ রথে স্থাপন করে শহর পরিক্ৰমা করা হয়। আহমেদাবাদ ছাড়াও পুরির প্ৰসিদ্ধ জগন্নাথ মন্দিরেও এই একই দৃশ্য দেখা গেছে। রথযাত্ৰা উপলক্ষে পুরি আজ জনসমুদ্ৰে পরিণত হয়। যে দিকেই চোখ যায় শুধু ভক্তপ্ৰাণ মানুষের ঢল। আহমেদাবাদে রথের অগ্ৰভাবে ১৯টি সুসজ্জিত হাতি,ট্যাবলো সহ ১০০টি ট্ৰাক এবং ৩০টি সংগীত গোষ্ঠীর সদস্যরা অংশ নেন। সর্বত্ৰই ভক্তরা মিছিল করে জগন্নাথকে রথে বসিয়ে নিয়ে শহর পরিক্ৰমায় মেতে ওঠেন। পুরি,আহমেদাবাদ সহ দেশের বিভিন্ন স্থানের জগন্নাথ মন্দিরে এদিন সকাল থেকে আয়োজন করা হয় নাম সংকীর্তনের।

রথযাত্ৰার এই শুভলগ্নে প্ৰধানমন্ত্ৰী নরেন্দ্ৰ মোদি ভক্তদের প্ৰতি শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। প্ৰধানমন্ত্ৰী এই দিনটি সম্পর্কে তাঁর অনুভব ও শুভেচ্ছা টুইটারের মাধ্যমে শেয়ার করেন। ভারতের বিভিন্ন প্ৰান্তে রথযাত্ৰা পালিত হলেও আহমেদাবাদ ও পুরিতে রথযাত্ৰার আয়োজন করা হয় বিশালকারে। ভক্তদের প্ৰতি শুভেচ্ছা জানিয়ে প্ৰধানমন্ত্ৰী টুইটারে লিখেছেন,রথযাত্ৰার এই শুভ সন্ধিক্ষণে প্ৰত্যেকের প্ৰতি রইলো আমার শুভেচ্ছা। ‘আমরা প্ৰভু জগন্নাথের আশীর্বাদ চাইবো প্ৰত্যেকের সুস্বাস্থ্য,সুখ ও সমৃদ্ধির জন্য। জয় জগন্নাথ’।

উল্লেখনীয় বিষয় হলো, মাস কয়েক আগে প্ৰবল ঘূর্ণি ঝড় ফণী ওড়িশার বুক বিধ্বস্ত করে দেওয়া সত্ত্বেও রাজ্যবাসী নিষ্ঠা,ভক্তি ও সততার সঙ্গে জগন্নাথ দেবের রথযাত্ৰা আয়োজনে কোনও খামতি রাখেননি। রথযাত্ৰাকে কেন্দ্ৰ করে পুরির আকাশে বাতাসে আজ শুধু ভক্তি গঙ্গা বইছে। রথের দড়ি টেনে জগন্নাথ ধ্বনি দিয়ে আবেগে ভাসছেন মানুষ। ওড়িশা সরকার ফণী বিধ্বস্ত অঞ্চলগুলোতে পরিকাঠামো ব্যবস্থা মেরামত করার জন্য নিয়ম শৃঙ্খলার সঙ্গে কাজ করে চলেছে। রাজ্য সরকার আশ্বাস দিয়েছে ঝড় বিধ্বস্ত লোকেদের দুঃখ কষ্ট লাঘবের চেষ্টা করা হচ্ছে।

এদিকে স্বরাষ্ট্ৰমন্ত্ৰী অমিত শাহকে বার্ষিক গুজরাট জগন্নাথ যাত্ৰার আগে আহমেদাবাদের জগন্নাথ মন্দিরে পুজো দেবেন। পত্নী সোনাল শাহকে সঙ্গে নিয়ে তিনি আহমেদাবাদে এসেছেন। স্বরাষ্ট্ৰমন্ত্ৰীর দায়িত্ব গ্ৰহণের পর অমিত শাহর এটাই প্ৰথম গুজরাট সফর। আটদিন পর হবে উল্টো রথ।

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ আহমেদাবাদে রথযাত্ৰা ও ভক্তদের সুরক্ষায় ইজরায়েলি ড্ৰোন

Next Story