Begin typing your search above and press return to search.

রিমা দাসের ভিলেজ রকস্টার্স অসমে স্কুলের ইংরাজি পাঠক্ৰমে অন্তর্ভুক্ত

রিমা দাসের ভিলেজ রকস্টার্স অসমে স্কুলের ইংরাজি পাঠক্ৰমে অন্তর্ভুক্ত

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  13 Feb 2020 11:29 AM GMT

মুম্বইঃ রিমা দাসের রাষ্ট্ৰীয় পুরস্কার জয়ী ছবি ভিলেজ রকস্টার্স-এর একটি অধ্যায় এখন অসমের স্কুলগুলিতে ইংরাজি পাঠ্যবইয়ে অন্তর্ভুক্ত হয়েছে। এই ছবিটি ২০১৯-এ ভারত থেকে অস্কার-এর জন্য মনোনীত হয়েছিল।

‘আমার বাবা একজন স্কুল শিক্ষক ছিলেন এবং মা চালাতেন একটা প্ৰিন্টিং প্ৰেস। আমিও একজন শিক্ষিকা হওয়ার প্ৰস্তুতি নিয়েছিলাম। আমরা এমন একটা পরিবার থেকে উঠে এসেছি যেখানে শিক্ষাকে একটা বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হতো। আমার সমস্ত সাফল্যের মূলে রয়েছেন আমার অভিভাবকরা। এই সাফল্যের জন্য আমার অভিভাবকরা গর্বিত বোধ করেন এবং আমিও নিজেকে অত্যন্ত সুখী আনুভব করি। ভিলেজ রকস্টার্স-এর পুরো টিমই ছবির সাফল্যে খুশি-বলেন রিমা দাস।

ছবির গল্প এখন অসমে সপ্তম শ্ৰেণির ইংরেজি পাঠ্যবইয়ে অন্তর্ভুক্ত হয়েছে। এই পাঠক্ৰমের নাম হলো ‘ধুনুস গিটার’। সপ্তম শ্ৰেণির পাঠক্ৰমে অন্তর্ভুক্ত ‘ধুনুস গিটার’ নামের খণ্ডটি চলচ্চিত্ৰটির যাত্ৰার সঙ্গে ভিলেজ রকস্টার্স-এর কাহিনী বর্ণনা করা হয়েছে।

২০১৯ সালের এপ্ৰিলে স্টেট কাউন্সিল অফ এডুকেশন রিসার্স অ্যান্ড ট্ৰেনিং,অসম ড.মিজো প্ৰভা বরার নেতৃত্বে নতুন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের পাঠক্ৰমগুলোর বিকাশ সাধন করে।

ছবির পরিচালক রিমা দাস বলেন,‘আমি এটা ভেবে নিজেকে ধন্য মনে করছি যে অসমের ছেলে-মেয়েরা একটা নতুন বিচার ধারা সম্পর্কে অবগত হবে এবং আমার ছবি নির্মাণ যাত্ৰার একটা ঝলক দেখতে পাবে। ‘আমি আশা করবো অসমে নতুন প্ৰজন্ম ছবি তৈরির জন্য এগিয়ে আসবে। টরেন্টো ছবি মহোৎসবকে অনেক ধন্যবাদ যারা ভিলেজ রকস্টার্সকে প্ৰিমিয়ার করেছে এবং আমাকে বিশ্বাস করেছে’-বলেন রিমা।

ভিলেজ রকস্টার্স-এ ১০ বছর বয়সী ধুনুর যাত্ৰা দেখানো হয়েছে,যে অসমের একটি গ্ৰামাঞ্চলের পটভূমি থেকে এসেছে এবং নিজস্বভাবে একটা গিটার নেওয়ার স্বপ্ন দেখেছে। রিমার ‘ভিলেজ রকস্টার্স’ এবং ‘বুলবুল কেন সিং’ নেটফ্লিক্সেও প্ৰিমিয়ার করা হয়েছে।

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ এলপিজি গ্যাস সিলিন্ডারের মূল্য বেড়েছে ১৪৯.৫০ টাকা

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: 46th Karbi Youth Festival to begin on Feb 15th

Next Story