Begin typing your search above and press return to search.

‘এলজিবিআই বিমানবন্দরের নতুন টার্মিনাল ২০২১-এ তৈরি হয়ে যাবে’

‘এলজিবিআই বিমানবন্দরের নতুন টার্মিনাল ২০২১-এ তৈরি হয়ে যাবে’

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  27 Feb 2020 10:28 AM GMT

বরঝাড়ঃ ‘গুয়াহাটির কাছে এলজিবিআই(লোকপ্ৰিয় গোপীনাথ বরদলৈ আন্তর্জাতিক)বিমানবন্দরের নতুন টার্মিনাল ২০২১-এর প্ৰথম ছয় মাসের মধ্যে কর্মক্ষম হয়ে উঠবে। এই নতুন টার্মিনালের নির্মাণ কাজ দ্ৰুতগতিতে এগোচ্ছে’। বুধবার এখানে একথা জানিয়েছেন এয়ারপোর্টস অথরিটি অফ ইন্ডিয়ার(এএআই)চেয়ারম্যান অরবিন্দ সিং। সময়ের চাহিদার প্ৰতি লক্ষ্য রেখেই এএআই ওখানে বিশ্ব শ্ৰেণির সুসংহত প্যাসেঞ্জার টার্মিনাল বিল্ডিং নির্মাণ করছে। এই টার্মিনাল বিল্ডিঙে সব ধরনের সু্যোগ সুবিধা থাকবে-বলেন তিনি।

সিং এই প্ৰথমবার উত্তর পূর্বাঞ্চল(এনইআর)সফরে এসেছেন। এই অঞ্চলের বিভিন্ন প্ৰকল্প এবং এতদঅঞ্চলের বিমানবন্দরগুলোর কাজকর্ম খতিয়ে দেখতে। এএআই-র সদর দপ্তরে প্ৰধান বিমান বন্দরগুলোর ডিরেক্টর এবং অঞ্চলটির বরিষ্ঠ আধিকারিকদের সঙ্গেও মত বিনিময় করেন তিনি।

এএআই-র চেয়ারম্যান অরবিন্দ সিং রাজ্যের মুখ্য সচিব কুমার সঞ্জয় কৃষ্ণর সঙ্গে দেখা করে বিমান উড়ান সম্পর্কিত বিভিন্ন পরিকাঠামো ও রাজ্যের আসন্ন প্ৰকল্পগুলো নিয়ে তার সঙ্গে আলোচনা করেন। জমি অধিগ্ৰহণ,নিউ গ্ৰিনফিল্ড এয়ারপোর্ট প্ৰজেক্ট এবং প্ৰত্যন্ত অঞ্চলগুলির সঙ্গে যোগাযোগ গড়ে তোলার বিষয়েও তাঁদের মধ্যে আলোচনা হয়। এই অঞ্চলে অসমেই সর্বাধিক সংখ্যক বিমানবন্দর চালু রয়েছে। সচল এই বিমান বন্দরগুলোর তালিকায় রয়েছে গুয়াহাটির বরঝাড়.ডিব্ৰুগড়,শিলচর,তেজপুর,যোরহাট এবং লীলাবাড়ি।

প্ৰচার মাধ্যমের সঙ্গে মত বিনিময়কালে সিং উল্লেখ করেন,এলজিবিআই বিমানবন্দরে পণ্য পরিবহণের সু্যোগ সুবিধা বৃদ্ধি করা হবে। এজাতীয় পদক্ষেপের ফলে কৃষকরা উপকৃত হবেন এবং তারা রাজ্য ও নিকটবর্তী অঞ্চলগুলোর সঙ্গে কৃষি ব্যবসা চাঙ্গা করার সু্যোগ পাবেন।

পর্যটন ও স্থানীয় পণ্য সামগ্ৰী রপ্তানির ক্ষেত্ৰে এলজিবিআই বিমানবন্দর একটা প্ৰধান হাব। ২০১৯-এ এই বিমানবন্দর দিয়ে যাত্ৰী চলাচলের সংখ্যা ৬ মিলিয়ন অতিক্ৰম করেছে।

ধুবড়িতে নতুন করে নির্মীয়মাণ রূপসি বিমানবন্দর সম্পর্কে জানতে চাওয়া হলে জবাবে সিং বলেন,এএআই এখন ডিরেক্টরেট জেনারেল অফ সিভিল অ্যাভিয়েশনের(ডিজিসিএ)লাইসেন্সের অপেক্ষা করছে। ওই লাইসেন্স পাওয়ার তিন-চার মাসের মধ্যে চালু হয়ে যাবে এই বিমানবন্দর।

সিং নিউ গুয়াহাটি এয়ারপোর্ট টার্মিনাল বিল্ডিঙের নির্মাণস্থল পরিদর্শন করে প্ৰকল্পের অগ্ৰগতি খতিয়ে দেখেন। গুয়াহাটিতে এনইআর এয়ারপোর্টগুলোর আঞ্চলিক সদরদপ্তরে এই অঞ্চলের এয়ারপোর্ট ডিরেক্টরদের সঙ্গে এক পর্যালোচনা বৈঠকেও মিলিত হন সিং। গুয়াহাটি,আগরতলা,ইম্ফল,ডিব্ৰুগড়,শিলচর,যোরহাট,শিলং এবং ডিমাপুরের এয়ারপোর্ট ডিরেক্টররা এই বৈঠকে অংশ নেন। ভারত আগামি বছরগুলোতে বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তর অ্যাভিয়েশন মার্কেট হতে চলেছে। বিশ্বের অধিকাংশ বিমানবন্দর ভবিষ্যতের চাহিদা মেটাতে তাদের বর্তমান পরিকাঠামো সম্প্ৰসারণ করছে। এক্ষেত্ৰে উত্তর পূর্বের এয়ারপোর্টগুলিও পিছিয়ে নেই। বিমান পরিবহণের পরিকাঠামো উন্নত করা এই মুহূর্তে খুবই অপরিহার্য হয়ে পড়েছে। অরুণাচল প্ৰদেশের মানুষের আশা আকাঙ্খা পূরণে ইটানগরের হোলোঙ্গিতে গ্ৰিনফিল্ড এয়ারপোর্ট নির্মাণে পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলে উল্লেখ করেন সিং।

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ উজানে ফের চোলাই মদের ব্যবসা,আবগারি কর্তাদের সতর্ক করলেন মন্ত্ৰী পরিমল শুক্লবৈদ্য

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: Minor boy dies after consuming insecticide in Biswanath

Next Story