সংবাদ শিরোনাম

একজনও অবৈধ প্ৰব্ৰজনকারীকে ভারতে থাকতে দেওয়া হবে না

অবৈধ প্ৰব্ৰজনকারী

গুয়াহাটিঃ সদ্য প্ৰকাশিত চূড়ান্ত রাষ্ট্ৰীয় নাগরিক পঞ্জি(এনআরসি)থেকে ১৯ লাখের বেশি লোকের নাম বাদ পড়ার পর স্বরাষ্ট্ৰমন্ত্ৰী অমিত শাহ রবিবার এখানে বলেন,কোনও অবৈধ প্ৰব্ৰজনকারীকে ভারতে থাকতে দেওয়া হবে না। অসম প্ৰশাসনিক স্টাফ কলেজে গতকাল বিকেলে উত্তর পূর্ব পরিষদের(এনইসি)প্লেনারি অধিবেশনে উত্তর পূর্বাঞ্চলের আট রাজ্যের মুখ্যমন্ত্ৰীদের উপস্থিতিতে ভাষণ দিচ্ছিলেন স্বরাষ্ট্ৰমন্ত্ৰী।

‘এনআরসি নিয়ে বিভিন্ন জন বিভিন্ন ধরনের প্ৰশ্ন তুলেছেন। আমি এটা খোলসা করে বলতে চাই যে কেন্দ্ৰীয় সরকার একজনও অবৈধ বিদেশিকে এদেশে থাকতে দেবে না। এটা আমাদের প্ৰতিশ্ৰুতি’-বলেন শাহ। তিনি আরও বলেন,সময়ের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখেই এনআরসির কাজ সম্পূর্ণ করা হয়েছে।

অন্যদিকে প্ৰধানমন্ত্ৰী নরেন্দ্ৰ মোদির বিভিন্ন পরিকল্পনার প্ৰতি আলোকপাত করে শাহ বলেন,বিজেপি চায় উত্তর পূর্বাঞ্চল দেশের উন্নয়নে বিশেষ অবদান রাখুক। তিনি বলেন,এনইসি ২০২২ সালে ভারতের ৭৫তম স্বাধীনতা দিবস পালনের সঙ্গে তার অস্বিত্বের ৫০তম বর্ষ পূর্ণ করবে।

স্বরাষ্ট্ৰমন্ত্ৰী ২০২২ সালের মধ্যে এই অঞ্চলের আমূল পরিবর্তন সাধনে এনইসিকে একটা রোড ম্যাপ প্ৰস্তুত করার নির্দেশ দেন। প্ৰধানমন্ত্ৰী নরেন্দ্ৰ মোদি উত্তর পূর্বাঞ্চলকে উন্নয়নের নতুন চালিকা শক্তিতে রূপান্তরিত করার যে সদিচ্ছা পোষণ করেছেন সেই প্ৰসঙ্গ উত্থাপন করে শাহ বলেন,বিজেপি সরকার এনইসিকে পরিকল্পনা ও নীতি প্ৰস্তুতকারী সংস্থা থেকে একটা বিশাল রূপায়ণ সংস্থায় উন্নীত করতে আগ্ৰহী।

‘নরেন্দ্ৰ মোদির আগে কোনও প্ৰধানমন্ত্ৰী এনইসি-র বৈঠকে আসেননি। উত্তর পূর্বাঞ্চলের উন্নতি ত্বরান্বিত করতে বিজেপি সরকারের সদিচ্ছা ও নিষ্ঠার জন্যই এই অঞ্চল আজ দ্ৰুত এগিয়ে চলেছে’-বলেন তিনি। অধিবেশনের শুরুতেই কিংবদন্তি সংগীত শিল্পী ড. ভূপেন হাজরিকার জন্মদিনের কথা স্মরণ করেন স্বরাষ্ট্ৰমন্ত্ৰী। বলেন,অসম এবং উত্তর পূর্বাঞ্চল জুড়ে ছড়িয়ে রয়েছে সংস্কৃতির অপূর্ব ভাণ্ডার। উন্নয়নের কথা ভাবতে গিয়ে এই অঞ্চলের সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যকে কোনওভাবেই ক্ষুণ্ণ হতে দেবে না বিজেপি সরকার-বলেন স্বরাষ্ট্ৰমন্ত্ৰী।

উত্তর পূর্বাঞ্চলের রাজ্যগুলোকে তাদের সীমানা বিরোধ মিটিয়ে ফেলার আবেদন জানিয়ে স্বরাষ্ট্ৰমন্ত্ৰী বলেন,যারা হিংসা ছেড়ে সঠিক রাস্তায় ফিরে আসবে তাদের বুকে টেনে নিতে বিজেপি সরকার প্ৰস্তুত। আর যারা নাশকতা চালিয়ে যাচ্ছে তাদের সাজা পাতে হবে। হিংসা,সন্ত্ৰাসের বিরুদ্ধে সরকারের শূন্য সহিষ্ণু নীতি বহাল থাকবে। তবে শাহ একথাও বলেন,উত্তর পূর্বে সন্ত্ৰাসী কার্যকলাপ আগের চেয়ে অনেকটাই কমেছে।

তিনি বলেন,এনইসির মোট বাজেটের ৩০ শতাংশ এই অঞ্চলের গ্ৰামগঞ্জের বিকাশে ব্যয় করা হবে। তিনি বলেন,অঞ্চলটির বিমান বন্দরগুলির আধুনীকিকরণে ৩৬০০ কোটি টাকা খরচ করা হচ্ছে। বেম্বো মিশন সফল করে তোলার ওপরও জোর দেন তিনি। বলেন,বেম্বো মিশন সফল হলে বাইরে থেকে ১ লক্ষ কোটি টাকার কাগজ আমদানি ঠেকাতে উত্তর পূর্বাঞ্চল সাহায্য করতে পারবে।

 

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ আজ স্বরাষ্ট্ৰমন্ত্ৰীর দায়িত্ব বুঝে নিলেন অমিত শাহ

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: Amit Shah’s Two Days Assam Visit: On Monday, Home Minister visits Kamakhya Temple