Top
Begin typing your search above and press return to search.

এনআরসি ভবিষ্যৎ প্ৰক্ৰিয়ায় ‘লঞ্চ প্যাড’ হতে পারেঃ অধ্যক্ষ

এনআরসি ভবিষ্যৎ প্ৰক্ৰিয়ায় ‘লঞ্চ প্যাড’ হতে পারেঃ অধ্যক্ষ

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  6 Sep 2019 12:49 PM GMT

গুয়াহাটিঃ রাজ্য ৩১ আগস্টে প্ৰকাশিত চূড়ান্ত রাষ্ট্ৰীয় নাগরিক পঞ্জি(এনআরসি)নিয়ে বিভিন্ন মহলে ক্ষোভের উদ্গীরণ দেখা যাচ্ছে। এরই মধ্যে বিধানসভার অধ্যক্ষ হিতেন্দ্ৰনাথ গোস্বামী এব্যাপারে তাঁর মতামত প্ৰকাশ করে বলেন,এনআরসিতে কিছু ভুলচুক থাকলেও রাজ্যের মানুষ ৩৫ বছর পর ‘কিছুটা বাস্তব চিত্ৰ’ পেলেন,যা এক্ষেত্ৰে ভবিষ্যৎ প্ৰক্ৰিয়ায় লঞ্চ প্যাড হিসেবে ব্যবহার করা যেতে পারে।

গোস্বামীর মতে,সহ্জ কথায় বলতে হলে কোনও কাজেই একশো শতাংশ যথার্থতা সম্ভব নয়। ‘সেখানে ভুলত্ৰুটি কিছুটা থেকেই যাবে,যা হয়েছে এনআরসি-র ক্ষেত্ৰে’। তিনি আরও বলেন,‘এখন মানবিক দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে ১৯ লাখেরও বেশি মানুষের ভবিষ্য নিরাপত্তার উপায় খুঁজতে হবে,যাদের নাম এনআরসিতে অন্তর্ভুক্তির অযোগ্য ঘোষণা করা হয়েছে। রাজ্য ও কেন্দ্ৰীয় সরকারকে এই বিষয়টি নিয়ে আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করতে হবে। প্ৰয়োজনে কেন্দ্ৰীয় সরকারকে এই ইস্যু নিয়ে কথা বলতে হবে পড়শি দেশটির সঙ্গে’।

অধ্যক্ষ আরও বলেন,চূড়ান্ত এনআরসি প্ৰকাশের আগে থেকে জাতীয় প্ৰচার মাধ্যমগুলো অসম ও অসমিয়া মানুষ সম্পর্কে যে শোচনীয় চিত্ৰ তুলে ধরেছে তা যে কতটা ভুল রাজ্যের মানুষের সহিষ্ণুতাই তা প্ৰমাণের জন্য যথেষ্ট। ‘রাজ্যের মানুষের সহিষ্ণুতা চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে যে,এনআরসি নবায়ন ও চূড়ান্ত এনআরসি প্ৰকাশের পরবর্তী সময়েও রাজ্যে কোনও রকমের অপ্ৰীতিকর ঘটনা ঘটতে দেখা যায়নি।

গোস্বামী আরও বলেন,যে ১৯ লাখের বেশি মানুষকে এনআরসিতে অন্তর্ভুক্তির অযোগ্য ঘোষণা করা হয়েছে তাদের মধ্য থেকে প্ৰকৃত ভারতীয় ও বিদেশি কারা তা চিহ্নিত করতে আমাদের সবার আলোকপাত করা উচিত’।

রাজ্য বিধানসভার অধ্যক্ষ বৃহস্পতিবার পরিষ্কার করে বলেন,তাঁর একজন বিজ্ঞানী ভাই জিতেন্দ্ৰ নাথ গোস্বামী এখন গুজরাটের বাসিন্দা। ওখানে ভোটাধিকারও রয়েছে তাঁর। তাই এনআরসিতে নাম অন্তর্ভুক্তির জন্য তিনি আবেদন করেননি। স্থানীয় কিছু প্ৰচার মাধ্যমে খবর প্ৰকাশিত হয়েছে যে বিজ্ঞানী জিতেন্দ্ৰ গোস্বামীর নাম এনআরসিতে অন্তর্ভুক্ত হয়নি। তাই নাম অন্তর্ভুক্ত না হওয়ার পিছনে বিভিন্ন কারণ থাকতে পারে।

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ এনআরসি কর্তৃপক্ষের ‘রিজেকশন অর্ডার’ পাওয়ার ১২০ দিনের মধ্যে আপিল করতে পারবেন নামছুটরা

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: Watch Video | 58th Teachers' Day observed at Tinsukia and Digboi

Next Story