ন্যাশনাল

অভিনন্দনের গ্ৰেপ্তারিতে জড়িত পাক কমান্ডো ভারতীয় সেনার গুলিতে নিহত

ভারতীয় সেনা

নয়াদিল্লিঃ ভারতীয় বায়ুসেনার উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমানের গ্ৰেপ্তারিতে জড়িত পাক কমান্ডারকে নিকেশ করেছে ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনী। পাক প্ৰচার মাধ্যমে প্ৰকাশিত তথ্যে এমনটাই উল্লেখ করা হয়েছে। চলতি বছরের ফেব্ৰুয়ারিতে বালাকোটে ভারতীয় বায়ু সেনার এয়ার স্ট্ৰাইকের সময় অভিনন্দনের জেট বিমানটি ভেঙে পড়ে পাকিস্তানের মাটিতে। ওই সময় অভিনন্দন প্যারাসুটে অবতরণ করতে সক্ষম হলেও দুর্ভাগ্যবশত তাঁর অবতরণ স্থলটি ছিল পাকিস্তানের এলাকা। পাক সেনার বিশেষ সার্ভিস গ্ৰুপের সুবেদার আহমেদ খান ওই সময় উইং কমান্ডার অভিনন্দনকে গ্ৰেপ্তার করা ছাড়াও তাঁকে নির্যাতন করার আভিযোগ রয়েছে। অবশেষে গত ১৭ আগস্ট নাকিয়াল সেক্টরের আন্তর্জাতিক নিয়ন্ত্ৰণ রেখায় গোলাগুলির সময় ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনী আহমেদকে খতম করতে সক্ষম হয়। আহমেদ ওই এলাকায় জৈশ-ই-মহম্মদের জঙ্গিদের ভারতে অনুপ্ৰবেশের জন্য চক্ৰান্ত করছিল বলে প্ৰতিরক্ষা বিভাগের এক রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে। ২৭ ফেব্ৰুয়ারি পাক ভূমিতে অভিনন্দনের গ্ৰেপ্তারের পর পরই পাকিস্তান তাঁর যে ছবি প্ৰকাশ করেছিল তাতে দাঁড়িওয়ালা আহমেদ খানকে অভিনন্দনের পিছনে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গিয়েছিল।

বালাকোটে ভারতীয় বায়ু সেনার এয়ার স্ট্ৰাইকের পর অভিনন্দন যখন মিগ-২১ নিয়ে একটি পাকিস্তানি জোট বিমানের কিছু ধাওয়া করছিলেন ওই সময় পাক সেনা তাঁর বিমানটি গুলি করে নামায়। অভিনন্দন প্যারাসুটে পাকিস্তানের মাটিতে নামতে সফল হলেও পাক সেনা তাঁকে গ্ৰেপ্তার করে। পরে ভারত ও আন্তর্জাতিক চাপের কাছে মতি স্বীকার করে পাকিস্তান সসম্মানে অভিনন্দনকে মুক্তি দিতে বাধ্য হয়। রিপোর্টে প্ৰকাশ,আহমেদ খান নৌসেরা,সুন্দরবনি এবং পাল্লানওয়ালা সেক্টরে জঙ্গিদের ভারতে অনুপ্ৰবেশে মদত দিচ্ছিলো। পাক সেনা আহমেদকে জঙ্গি অনুপ্ৰবেশ অভি্যান চালানোর দায়িত্ব দিয়েছিল বলে ওই রিপোর্টে প্ৰকাশ।

 

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ সাহসিকতার জন্য ‘বীর চক্ৰ’ সম্মান উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমানকে

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: Man-Elephant Conflict in Majuli, Many residences destroyed