ন্যাশনাল

কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা তুলে নেওয়ার প্ৰশংসা করলেন রাষ্ট্ৰপতি রামনাথ কোবিন্দ

রামনাথ কোবিন্দ

নয়াদিল্লিঃ নরেন্দ্ৰ মোদির নেতৃত্বাধীন কেন্দ্ৰীয় সরকার জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা তুলে নেওয়ায় এবং রাজ্যকে দ্বিখণ্ডিত করে দুটো কেন্দ্ৰ শাসিত অঞ্চল ঘোষণা করার প্ৰশংসা করেছেন রাষ্ট্ৰপতি রামনাথ কোবিন্দ। ৭৩তম স্বাধীনতা দিবসের প্ৰাক্কালে বুধবার জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবার সময় কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা প্ৰত্যাহার করায় এবং রাজ্যটিকে জম্মু ও কাশ্মীর ও লদাখ দুটো পৃথক কেন্দ্ৰশাসিত অঞ্চল ঘোষণা করায় মোদি সরকারের তারিফ করেন তিনি।

‘আমি মনে করি সম্প্ৰতি জম্মু ও কাশ্মীর এবং লদাখে যে পরিবর্তন আনা হয়েছে তা ওই অঞ্চলের মানুষজনকে দারুণভাবে উপকৃত করবে’-বলেন কোবিন্দ।

রাষ্ট্ৰপতি আরও বলেছেন,কাশ্মীরে যে রাজনৈতিক পরিবর্তনের ব্যবস্থা করা হয়েছে তাতে করে ওই অঞ্চলের মানুষ এখন দেশের অন্যান্য অঞ্চলের মতো সম অধিকার ও সু্যোগ,সুবিধা লাভ করবেন। তিনি বলেন,সারা দেশের মানুষ যেভাবে ব্যক্তি স্বাধীনতা,মৌলিক অধিকার ভোগ করছেন,কাশ্মীরের মানুষ এখন থেকে সেই সমস্ত অধিকারের অংশীদার হলেন।

তিন তালাকের অবসান ঘটিয়ে সরকার আমাদের বোনেদের প্ৰতি ন্যায় বিচারই করেছে। সংসদের সম্প্ৰসারিত বাজেট অধিবেশনে আদর্শগত দিক থেকে পার্থক্য থাকলে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল যেভাবে অংশ নিয়েছে রাষ্ট্ৰপতি তার প্ৰশংসা করেছেন। এরফলে সংসদে বেশকটি গুরুত্বপূর্ণ বিল পাস করতে পেরেছে সরকার। সদ্য সমাপ্ত লোকসভা ও রাজ্যসভার অধিবেশনে গঠনমূলক আলোচনা ও বিতর্কের মধ্য দিয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিলগুলি পাস করানো সম্ভব হওয়ায় সন্তোষ ব্যক্ত করেন কোবিন্দ।

তিনি বলেন,ভারত বরাবরই শান্তিপূর্ণ সহাবস্থানে বিশ্বাসী। সব ধর্ম-ভাষার প্ৰতি শ্ৰদ্ধা জানানোই ভারতের দীর্ঘদিনের পরম্পরা। দেশে আর্থিক ক্ষেত্ৰে অনগ্ৰসর শ্ৰেণির জন্য সরকার যে সংরক্ষণ ব্যবস্থা চালু করেছে তার প্ৰশংসা করেন তিনি।

দুর্নীতি,ভ্ৰষ্টাচার দমন করে সরকারি দপ্তরগুলিতে কর্মসংস্কৃতি ফেরাতে মোদি সরকার যে পদক্ষেপ নিয়েছে রাষ্ট্ৰপতির গলায় তার প্ৰশংসা শোনা গেছে। ইসরোর সফল চন্দ্ৰাভি্যানের জন্য রাষ্ট্ৰপতি দেশের বিজ্ঞানীদের অভিনন্দন জানিয়েছেন।

 

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ সাহসিকতার জন্য ‘বীর চক্ৰ’ সম্মান উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমানকে

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: Chief Minister Sarbananda Sonowal hoisted the National Flag at Khanapara Veterinary Field