সংবাদ শিরোনাম

ক্যাবের বিরুদ্ধে আহূত বনধে ব্যাহত অসমের জনজীবন,বিক্ষিপ্ত হিংসা

ক্যাব

 

নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের(ক্যাব)বিরুদ্ধে ডাকা বনধে গোটা রাজ্য আজ স্তব্ধ হয়ে পড়ে। আন্দোলনকারীরা টায়ার জ্বালিয়ে প্ৰতিবাদ জানায়। ক্যাবের বিরুদ্ধে উত্তর পূর্ব ছাত্ৰ সংগঠন(নেসো)আজকের এই বনধ ডেকেছিল। বিভিন্ন দল,সংগঠন এই বনধের প্ৰতি সমর্থন জানিয়েছিল। আজ সারা রাজ্যে বনধের প্ৰভাব দেখা গেছে। এদিন এই বিলের বিরুদ্ধে বিভিন্ন স্থানে প্ৰতিবাদ সাব্যস্ত করেন প্ৰতিবাদকারীরা। রাজ্যের বিভিন্ন স্থানে বিক্ষিপ্ত হিংসাত্মক ঘটনারও রিপোর্ট পাওয়া গেছে। মার্ঘেরিটায়ও এদিন বনধের সর্বাত্মক প্ৰভাব পড়ে। মার্ঘেরিটার সেগুনবাড়ির ৩৮নং রাষ্ট্ৰীয় সড়কে প্ৰতিবাদকারীদের জ্বালানো টায়ারের আগুন নেভাতে ছুটে এসেছিল অগ্নি নির্বাপক বাহিনী। কিন্তু প্ৰতিবাদকারীরা তাদের তাড়িয়ে দেয়। ওদিকে বিশ্বনাথে এদিন বনধের সর্বাত্মক প্ৰভাব পরিলক্ষিত হয়। আসু সহ হাজার হাজার মানুষ বিশ্বনাথের রাজপথে নেমে ১৫নং রাষ্ট্ৰীয় সড়কে টায়ার পুড়িয়ে কেন্দ্ৰ ও রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ধ্বনি দিয়ে বিশ্বনাথের আকাশ বাতাস কাঁপিয়ে তোলেন প্ৰতিবাদকারীরা। বিলের বিরোধিতায় যোরহাটের বিভিন্ন প্ৰান্তে বনধ সমর্থকরা টায়ার জ্বালিয়ে প্ৰতিবাদ করার পাশাপাশি আসু সহ বিভিন্ন দল সংগঠন প্ৰতিবাদ জানায়। কাজিরঙা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্ৰ সমাজ,বীর লাচিত,আসু এবং বৃহত্তর পশ্চিম যোরহাটবাসী মানুষ ক্যাবের বিরুদ্ধে প্ৰতিবাদে সোচ্চার হয়ে ওঠেন।

এদিকে এদিন লাহরিঘাটেও বনধের ব্যাপক প্ৰভাব পড়ে। জাতি ধ্বংসী বিলটির বিরুদ্ধে অসম বনধের দ্বিতীয় দিনেও লাহরিঘাটের বিভিন্ন স্থানে সকাল থেকেই সর্বাত্মক বনধের প্ৰভাব পরিলক্ষিত হয়। লাহরিঘাটের বরবড়িতে সারা অসম সংখ্যালঘু ছাত্ৰ ইউনিয়নের(আমসু)শতাধিক কর্মী পূর্ত পথে টায়ার জ্বালিয়ে বিভিন্ন শ্লোগান দিয়ে উত্তাল প্ৰতিবাদ জানায়। লাহরিঘাটের কছারিবাড়িতে নাগরিক মঞ্চের উদ্যোগে কয়েকশো স্থানীয় মানুষ মিছিল বের করেন। তারা রাজপথে টায়ার জ্বালিয়ে বিলের বিরুদ্ধে প্ৰতিবাদ জানান।

 

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ ক্যাবের বিরুদ্ধে অসমিয়া শিল্পী,রাজ্য চলচ্চিত্ৰ পুরস্কার থেকে ছবির নাম প্ৰত্যাহার জাহ্নু বরুয়ার

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: AASU hangs effigies of State Ministers in Kokrajhar against CAB