Begin typing your search above and press return to search.

দল সভাপতির পদে থাকতে গররাজি রাহুল গান্ধী

দল সভাপতির পদে থাকতে গররাজি রাহুল গান্ধী

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  27 Jun 2019 7:34 AM GMT

নয়াদিল্লিঃ রাহুল গান্ধী বর্তমানে ভারতীয় জাতীয় কংগ্ৰেসের সভাপতির গুরু দায়িত্বে থাকলেও দল প্ৰধানের পদে কাজ চালিয়ে যেতে তিনি তাঁর অনীহার কথা ফের প্ৰকাশ করেছেন। কংগ্ৰেস সংসদীয় দলের এক বৈঠকে রাহুল তাঁর মনোভাব ফের জানিয়ে দেন। সোনিয়া গান্ধীর নেতৃত্বে কংগ্ৰেস সংসদীয় দলের এই বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়।

সম্প্ৰতি অনুষ্ঠিত লোকসভার নির্বাচনে কংগ্ৰেসের শোচনীয় পরাজয়ের পর দল সভাপতি বদল করার জন্য বিভিন্ন দাবি,সুপারিশ ও পরামর্শের ঝড় বইতে দেখা গিয়েছিল। অবশেষে কংগ্ৰেস সদস্যরা দল সভাপতি পদে রাহুল গান্ধীকে বহাল রাখার পক্ষেই একাত্মতা প্ৰকাশ করেন।

কংগ্ৰেস সদস্যদের মতে দল এখন একটা কঠিন সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে এবং এই সময়ে দল নেতারা চাইছেন রাহুলই দল প্ৰধানের দায়িত্বে বহাল থাকুন। দলীয় সদস্যরা আরও বলেছেন,রাহুল গান্ধীই একমাত্ৰ ব্যক্তি যিনি এই সময়ে দলের রাশ টেনে ধরতে পারেন। অন্য কারো পক্ষে তা সম্ভব বলে তাঁরা মনে করেন না। বৈঠক শেষ হবার পর বরিষ্ঠ কংগ্ৰেস নেতা শশী থারুর এবং মনীষ তিওয়ারি পৃথকভাবে রাহুল গান্ধীর সঙ্গে সাহায্য করেন। দলের ভরাডুবির জন্য কোনও একজন ব্যক্তিকে দোষারোপ করা কোনওভাবেই উচিত হবে না এবং নির্বাচনে হার দলের সমষ্টিগত ভুল বলেই তাঁরা গুরুত্ব দেন।

কিন্তু রাহুল গান্ধী ওই পদ ধরে রাখতে যে আর রাজি নন তা ঘুরে ফিরেই বলছেন। রাহুলকে কংগ্ৰেসের রাজ্য নেতাদের সঙ্গে আলোচনায় বসতে দেখে দলীয় নেতাদের মধ্যে আশার আলো জেগেছিল যে সভাপতির পদে তিনি সম্ভবত বহালই থাকবেন। কিন্তু বুধবার সংসদীয় দলের বৈঠকে সভাপতি পদ ছাড়ার কথা বলে রাহুল ফের দলীয় সদস্য ও নেতাদের হতাশই করলেন।

উল্লেখ্য,রাহুল গান্ধীর নেতৃত্বে এই নিয়ে উপর্যুপরি দ্বিতীয় রায় হার মানতে হলো কংগ্ৰেসকে। এবারের এই পরাজয় রাহুলকে যে রীতিমতো হতাশ করেছে,তা বুঝতে অসুবিধা হয় না। দল এই নিয়ে দুবার রাহুলের ওই প্ৰস্তাব প্ৰত্যাখ্যান করেছে। দলীয় নেতারা এখনও চাইছেন রাহুল দলের রাশ নিজের হাতে রাখুন।

এখন কথা হলো,রাহুল গান্ধী যদি তাঁর পদ থেকে সরে দাঁড়ান তাহলে তাঁর স্থলাভিষিক্ত কে হবেন সেটাই এখন লক্ষণীয় বিষয়। তবে এই মুহূর্তে দল সভাপতি পদে কারো নাম প্ৰস্তাবের প্ৰশ্ন উঠলে তিনি হবেন অশোক গেহলট। তবে কার্যনির্বাহী আরও চারজন সভাপতির সম্ভাবনাও উড়িয়ে দেওয়া যায় না। এব্যাপারে এখন পর্যন্ত কোনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি।

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ ভারতীয় সেনার ডগ স্কোয়াডের বিদ্ৰূপ করে সমালোচনার মুখে রাহুল গান্ধী

Next Story