রাজ্যের খবর

অসমের বরিষ্ঠ কংগ্ৰেস নেতা সান্টিয়াস কুজুর ও গৌতম রায় দল ছাড়লেন

কংগ্ৰেস নেতা

গুয়াহাটিঃ কংগ্ৰেসের দুঃসময় যেন কাটতেই চাইছে না বলে মনে হচ্ছে। দলের কিছু প্ৰথম সারির ও বিশ্বস্ত নেতা অবশেষে দলের সঙ্গে সমস্ত সম্পর্ক ছিন্ন করছেন। রাজ্যের কংগ্ৰেস সাংসদ সঞ্জয় সিং এবং ভুবনেশ্বর কলিতা দলের সঙ্গে সমস্ত সম্পর্ক চুকিয়ে গেরুয়া শিবিরে যোগ দিয়েছেন। এখন সান্টিয়াস কুজুর ও গৌতম রায়ও দল ছাড়লেন।

প্ৰাপ্ত রিপোর্ট অনু্যায়ী,উভয় বরিষ্ঠ কংগ্ৰেস নেতা শনিবার দলে ইস্তফা দিয়েছেন। কুজুর তাঁর সরকারি পদত্যাগ পত্ৰে উল্লেখ করেছেন,ব্যক্তিগত কিছু কারণে তিনি দলে ইস্তফা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। ইস্তফা পত্ৰে তিনি আরও উল্লেখ করেছেন,সুদীর্ঘ ১৩ বছর তিনি দলের সঙ্গে জড়িত ছিলেন এবং দলের সঙ্গে তাঁর এই সফর সুখকরই ছিল। রাষ্ট্ৰীয় রাজনৈতিক দলের অংশ হিসেবেই এতদিন তিনি কাজ করেছেন।

অন্যদিকে,গৌতম রায়ের কংগ্ৰেস ছাড়ার উদ্দেশ্য হলো তিনি ভারতীয় জনতা পার্টিতে(বিজেপি)যোগ দিতে চলেছেন। গৌতমবাবু তাঁর পদত্যাগপত্ৰ প্ৰদেশ কংগ্ৰেস সভাপতি রিপুন বরার কাছে পাঠিয়ে দিয়েছেন। পদত্যাগপত্ৰ পেশের সময় রায় বলেছেন তিনি কবে নাগাদ বিজেপিতে যোগ দিচ্ছে,মানুষ তা জানতে পারবেন।

রায় জনসমক্ষে ঘোষণা করেছেন তিনি বিজেপিতে যাচ্ছেন। তিনি আরও উল্লেখ করেছেন,ওই দলে যোগ দেওয়ার সিদ্ধান্ত তার ব্যক্তিগত এবং তিনি একাই সেটা করছেন। রায় আরও বলেছেন,প্ৰধানমন্ত্ৰী নরেন্দ্ৰ মোদির সঙ্গে তাঁর সুসম্পর্ক রয়েছে এবং বিজেপি-র রাজ্য সভাপতি রঞ্জিৎ দাসের সঙ্গে এ বিষয়ে তাঁর কথা হয়েছে। তিনি আরও উল্লেখ করেছেন বিজেপির হিন্দুত্ববাদের থিম তাঁকে টানছে। কারণ গত ৩০টা বছর তিনি হিন্দুদের ভোটেই নির্বাচন জিতেছেন। আর এজন্যই হিন্দুত্ববাদের প্ৰতি তাঁর দুর্নিবার আকর্ষণ রয়েছে।

এরআগে প্ৰাক্তন কংগ্ৰেস সাংসদ ভুবনেশ্বর কলিতা সম্প্ৰতি ভারতীয় জাতীয় কংগ্ৰেস থেকে ইস্তফা দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছিলেন। কলিতা শুক্ৰবার আনুষ্ঠানিকভাবে বিজেপিতে যোগ দেন। সংবিধানের ৩৭০ ধারা বাতিল করা নিয়ে কংগ্ৰেসের বিরোধিতার প্ৰতিবাদে রাজ্যসভার সদস্য পদে ইস্তফা দেওয়া ব্যক্তির মধ্যে কলিতাই প্ৰথম।

 

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ অবশেষে গেরুয়া বসন পরলেন ভুবনেশ্বর কলিতা

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: Two illegal saw mills seized in Kampur