ব্ৰেকিং নিউজ

ইন্টারনেট বন্ধ? ইন্টারনেট ছাড়া বার্তা পাঠাতে ‘ব্ৰিজফি অ্যাপ’

ব্ৰিজফি অ্যাপ

 

ইন্তারনেট বন্ধ রয়েছে। ইন্তারনেট ছাড়া বার্তা পাঠানো যাবে ‘ব্ৰিজফি অ্যাপে’। এদিকে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের(কা)বিরুদ্ধে রাজ্যজুড়ে প্ৰতিবাদ অব্যাহত রয়েছে। নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন ২০১৯-এর বিরুদ্ধে রাজ্যে প্ৰতিবাদ চলার মধ্যেই অসম সরকার গত সপ্তাহে রাজ্যে ইন্টারনেট সেবা বন্ধ করে দেয়। ইন্তারনেটের অবিহনে ডিজিটেল জগত সম্পূর্ণ অন্ধকারে ডুবে যায়। কিন্তু এমন একটা অ্যাপ রয়েছে যার মাধ্যমে ইন্টারনেট ছাড়াই বার্তা পাঠানো যেতে পারে। এই অ্যাপ ব্যবহারের জন্য কোনও ধরনের ইন্টারনেটের প্ৰয়োজন নেই। ইন্তারনেট না থাকা অঞ্চলেও এই অ্যাপের মাধ্যমে বার্তা প্ৰেরণ করা যেতে পারে।

আমরা এটা বিলক্ষণ জানি যে ইন্টারনেট বন্ধ থাকার মানে হচ্ছে হোয়াটসঅ্যাপ,ফেসবুক বা অন্য ৩জি, ৪জি সেবাগুলো সম্পূর্ণভাবে বন্ধ হয়ে পড়া। কিন্তু কিছুদিন থেকে ‘ব্ৰিজফি অ্যাপ’টি সম্পর্কে টুইটারে কিছু প্ৰচার হতে দেখা গিয়েছে।

সংবাদ মাধ্যম সূত্ৰে জানা অনু্যায়ী,‘ব্ৰিজফি অ্যাপ’ হংকং সহ বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে ভাইরাল হয়ে পড়েছে। ফায়ারচেট-এর সঙ্গে ব্ৰিজফি অ্যাপের কিছুটা সাজু্য্য রয়েছে।
ব্ৰিজফি অ্যাপ কিভাবে কাজ করে?

ব্ৰিজফি অ্যাপটি মূলত তিনটি স্তরে কাজ করে। প্ৰথমত ‘একটি থেকে অন্যটি’,যেখানে দুজন উপভোক্তা ব্যবহারকারী নিজের ব্লুটুথ-এর সাহা্য্যে ১০০ মিটার দূরত্ব থেকে বার্তা প্ৰেরণ করতে পারে। দ্বিতীয়ত,যেটা বর্তমান সময়ে সর্বাধিক উপযোগী। এটা একটা থেকে অন্যটির অধিক দূরত্ব প্ৰণালীর। যেখানে ৩৩০ ফুট দূরত্ব থেকে বার্তা পাঠাতে পারে।

তৃতীয়টি হলো ‘ব্ৰডকাস্ট’ পদ্ধতি যে আন্দোলনের সময় ব্যবহার করা যেতে পারে। যেখানে উপভোক্তার উপরে থাকা অন্য ব্ৰিজফি ব্যবহারকারী উপভোক্তাকে বার্তা পাঠাতে পারেন। তার কনটেক্ট লিস্টে না এলেও এই বার্তা পাবেন।

শর্তঃ ব্ৰিজফি অ্যাপ ডাউনলোড করতে ইন্টারনেট অত্যন্ত আবশ্যক

 

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ ‘আমি মরবো,কিন্তু অসমে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন চাপাতে দেব না,বললেন জুবিন গার্গ

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: AJYCP & 30 other organizations launched ‘Gana Satyagraha Programme’ against CAA in Biswanath