Top
undefined
Begin typing your search above and press return to search.

রাজ্যে দৈনিক বিদ্যুতের চাহিদা ১,৮৫০ মেগাওয়াট

রাজ্যে দৈনিক বিদ্যুতের চাহিদা ১,৮৫০ মেগাওয়াট

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  31 July 2019 11:03 AM GMT

গুয়াহাটিঃ অসম বিদ্যুতের ক্ষেত্ৰে কবে স্বনির্ভর হয়ে উঠবে তা কারোরই জানা নেই। রাজ্যে বিদ্যুতের চাহিদা দিন দিনই বৃদ্ধি পাচ্ছে। অথচ গত কয়েক বছর ধরে রাজ্যে বিদ্যুৎ উৎপাদন ব্যবস্থা যেমন ছিল সেখানেই থমকে আছে। বর্তমানে রাজ্যে পিক আওয়ারে প্ৰতিদিন ১,৮৫০ মেগাওয়াট বিদ্যুতের প্ৰয়োজন। সেই ক্ষেত্ৰে অসমে প্ৰতিদিন গড়ে বিদ্যুৎ উৎপাদন হচ্ছে মাত্ৰ ২৬০ মেগাওয়াট। রাজ্যে উৎপাদিত এই বিদ্যুৎ দিয়ে চাহিদা পূরণ করা দিবা স্বপ্ন ছাড়া আর কিছুই নয়।

সবচেয়ে পরিতাপের কথা হলো,আসাম পাওয়ার জেনারেশন কর্পোরেশন(এপিজিসিএল লিমিটেড)গত তিন বছরে মাত্ৰ দুটো প্ৰকল্প হাতে নিয়েছে। এই প্ৰকল্প থেকে মাত্ৰ ৮০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনের কথা রয়েছে। অন্য আরও একটি প্ৰকল্পের কাজ এখনও পর্যন্ত সম্পূর্ণ হয়নি। এহেন হতাশাজনক বিদ্যুৎ পরিস্থিতির জন্য অসমকে বিদ্যুতের জন্য সম্পূর্ণভাবে বাইরের রাজ্যগুলির উপর নির্ভর করতে হচ্ছে। বিদ্যুৎ বিভাগের পক্ষ থেকে রাজ্যে বিদ্যুতের এই বেহাল চিত্ৰটি মঙ্গলবার রাজ্য বিধানসভায় তুলে ধরেন সংসদ বিষয়ক মন্ত্ৰী চন্দ্ৰমোহন পাটোয়ারি।

সদনে পাটোয়ারি বলেন,‘রাজ্যে বিদ্যুতের চাহিদা মেটাতে আমরা সেণ্ট্ৰাল পাওয়ার প্ৰজেক্ট থেকে ১,২০০ মেগাওয়াট এবং প্ৰাইভেট পাওয়ার প্ৰজেক্ট থেকে ৪ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ কিনছি। ওপেন মার্কেটে এনার্জি বিনিময়ের মাধ্যমে আমরা ৬৫০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ পাচ্ছি’।

পাটোয়ারি বলেন,এপিজিসিএল বিভিন্ন প্ৰকল্প নিয়ে কাজ করছে এবং সেগুলি বিভিন্ন পর্যায়ে রয়েছে। প্ৰকল্পগুলি হচ্ছে ১০০ মেগাওয়াটের নামরূপ রিপ্লেসমেন্ট প্ৰজেক্ট,৭০ মেগাওয়াটের আমগুড়ি সৌর প্ৰকল্প,৫০ মেগাওয়াটের নামরূপ সৌর প্ৰকল্প এবং ১২০ মেগাওয়াটের নিম্ন কপিলি জল বিদ্যুৎ প্ৰকল্প।

রাজ্যে বিদ্যুৎ গ্ৰাহকের সংখ্যা সম্পর্কে পাটোয়ারি বলেন,‘বর্তমানে রাজ্যে ৫২.২০ লক্ষ ঘরোয়া গ্ৰাহক রয়েছেন। বাণিজ্যিক উপভোক্তা হলেন ২.৭৮ লক্ষ,ইন্ডাস্ট্ৰিয়াল গ্ৰাহক আছেন ২১ হাজার,১,১৯০ জন গ্ৰাহক রয়েছেন চা,কফি ও রাবার ইন্ডাস্ট্ৰির। এছাড়াও অন্যান্য ৯২ হাজার গ্ৰাহক রয়েছেন। বিধায়ক ভুবন পেগুর এক প্ৰশ্নের জবাবে পাটোয়ারি বলেন,এনএইচপিসির(ন্যাশনাল হাইড্ৰোইলেকট্ৰিক পাওয়ার কর্পোরেশন)সঙ্গে ২০০৯-এর স্বাক্ষরিত চুক্তি অনু্যায়ী আমাদের ২৫ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ বিনামূল্যে পাওয়ার কথা। অর্থের বিনিময়ে ২০৮ মেগাওয়াট পাওয়ার কথা নিম্ন সুবনশিরি প্ৰকল্প থেকে। তবে সাম্প্ৰতিক চুক্তি অনু্যায়ী সুবনশিরি প্ৰকল্প থেকে ৫৩৩ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আমাদের পাওয়ার কথা আছে,প্ৰকল্পটি সম্পূর্ণ হলে।

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ রাজ্যে বিদ্যুৎ সংকট নিত্যদিনের সমস্যা হয়ে পড়ছে

Next Story