ব্ৰেকিং নিউজ

শীর্ষ কূটনীতিক থেকে মোদি মন্ত্ৰিসভায় বিদেশ মন্ত্ৰীর নতুন দায়িত্বে এস জয়শঙ্কর

জয়শঙ্কর

গুয়াহাটিঃ মোদি সরকার আজ মন্ত্ৰীদের চূড়ান্ত দপ্তর ঘোষণা করার পর শীর্ষ সারির কূটনীতিক সুব্ৰহ্মনিয়ম জয়শঙ্কর সরকারে নতুন বিদেশমন্ত্ৰী হিসেবে যোগ দিয়েছেন।

প্ৰাক্তন বিদেশ সচিব সুব্ৰহ্মনিয়ম জয়শঙ্কর বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কেন্দ্ৰীয় সরকারের ক্যাবিনেট মন্ত্ৰী হিসেবে শপথগ্ৰহণ করেন। শুক্ৰবার জয়শঙ্করকে বিদেশ মন্ত্ৰকের দায়িত্ব অর্পণ করা হয়। জয়শঙ্করই প্ৰথম বিদেশ সচিব যিনি বিদেশ মন্ত্ৰকের সর্বোচ্চ দায়িত্বে বহাল হলেন।

জয়শঙ্কর সেণ্ট স্টিফেন্স কলেজ থেকে স্নাতক ডিগ্ৰি অর্জন করেছিলেন। রাজনীতি বিজ্ঞানে স্নাতকোত্তর পাঠক্ৰম সম্পূর্ণ করার পর জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আন্তর্জাতিক সম্পর্কের ওপর এমফিল এবং পিএইচডি করেন। বিদেশ সচিব হিসেবে অবসর গ্ৰহণের প্ৰায় ১৬ মাস পর তিনি এই নতুন দায়িত্ব বুঝে নিলেন।

ইন্ডিয়ান ফরেন সার্ভিসের ১৯৭৭ ব্যাচের আধিকারিক জয়শঙ্কর বিদেশ সচিব হিসেবে দীর্ঘদিন অর্থাৎ প্ৰায় চারদশক কাজ করেছেন। রাষ্ট্ৰপতি রামনাথ কোবিন্দ গত মার্চে তাঁকে দেশের সর্বোচ্চ অসামরিক সম্মান পদ্মশ্ৰী সম্মানে ভূষিত করেন।

২০১৮ সালে বিদেশ সচিবের পদ থেকে অবসর নেন জয়শঙ্কর।

৬৪ বছর বয়সী জয়শঙ্কর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্ৰ,চিন,সিঙ্গাপুর এবং চেক প্ৰজাতন্ত্ৰে ভারতের রাষ্ট্ৰদূত হিসেবে কাজ করেছেন। ২০১৩ সালে বিদেশ সচিব পদে রঞ্জন মাথাই-র জায়গায় জয়শঙ্করকেই প্ৰথম পছন্দ হিসেবে বেছে নিয়েছিলেন প্ৰাক্তন প্ৰধানমন্ত্ৰী মনমোহন সিং।

২০০৯-২০১৩ পর্যন্ত চিনে ভারতের রাষ্ট্ৰদূত হিসেবে থাকাকালে বিভিন্ন কূটনৈতিক সমস্যা শক্ত হাতে মোকাবিলা করেছিলেন জয়শঙ্কর। ২০১৭ সালে ভারত ও চিনের মধ্যে ৭৩ দিন ধরে চলা ডোকলাম উত্তেজনা প্ৰশমনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালনের নজির রেখেছেন জয়শঙ্কর।