Begin typing your search above and press return to search.

এনআরসি-র জন্য ১৯৫১ সালকে ভিত্তি বছর ধরার সুপারিশ ‘অবাস্তব’: গগৈ

এনআরসি-র জন্য ১৯৫১ সালকে ভিত্তি বছর ধরার সুপারিশ ‘অবাস্তব’: গগৈ

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  1 Oct 2019 12:16 PM GMT

গুয়াহাটিঃ রাজ্যে রাষ্ট্ৰীয় নাগরিক পঞ্জির(এনআরসি)জন্য সিটিজেন্স কনভেনশন ১৯৫১ সালকে ভিত্তি বছর ধরার যে প্ৰস্তাব রেখেছে তা ‘অবাস্তব’ বলে আখ্যায়িত করেছেন প্ৰাক্তন মুখ্যমন্ত্ৰী তরুণ গগৈ। লোক জাগরণ মঞ্চ,অসম গত রবিবার নাগরিক সম্মেলনের আয়োজন করেছিল।

সোমবার দিশপুরে নিজের সরকারি বাসভবনে এক সাংবাদিক সম্মেলনে প্ৰাক্তন মুখ্যমন্ত্ৰী গগৈ বলেন,রাজ্যের বেশকিছু স্থানে ১৯৫১ সালের কোনও এনআরসি নেই। সেইহেতু এনআরসির জন্য ১৯৫১ সালকে ভিত্তি বছর হিসেবে ধরাটা মোটেই বাস্তবসম্মত নয়।

এর বিপরীতে অসম চুক্তিতে বিদেশি চিহ্নিতকরণ ও বহিষ্কারে ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চকেই ভিত্তি বছর ধরা হয়েছে,যা সবার কাছেই গ্ৰহণযোগ্য বিবেচিত হয়েছে। রাজ্যে রাষ্ট্ৰীয় নাগরিক পঞ্জি(এনআরসি)নবায়িত হয়েছে অসম চুক্তিতে উল্লেখ থাকা ওই তারিখের ভিত্তিতে।

গগৈ বলেন,‘সম্প্ৰতি যে চূড়ান্ত এনআরসি প্ৰকাশিত হয়েছে তা থেকে অনেক প্ৰকৃত ভারতীয়র নাম বাদ পড়েছে। নামছুট এই সমস্ত ভারতীয় মানুষের নাম এনআরসিতে অন্তর্ভুক্তির জন্য স্বরাষ্ট্ৰ বিষয়ক মন্ত্ৰকের(এমএইচএ)একটি রিভিউ কমিটি গঠন করা উচিত’।

এদিকে সর্বানন্দ সোনোয়ালের নেতৃত্বাধীন বিজেপি সরকার দিশপুরের ক্ষমতায় আসার পর কতজন বিদেশিকে রাজ্য থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে সে ব্যাপারে রাজ্য সরকারকে একটি শ্বেতপত্ৰ প্ৰকাশ করার দাবি জানিয়েছেন গগৈ।

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ চূড়ান্ত এনআরসি প্ৰকাশের একমাস পরও সরকার ও নামছুটরা এখনও অন্ধকারে

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: Beltola Lakhi Mandir Durga Preparations

Next Story