Top
undefined
Begin typing your search above and press return to search.

চূড়ান্ত এনআরসিতে অন্তর্ভুক্ত ৩,১১,২১,০০৪ জন ব্যক্তির নাম

চূড়ান্ত এনআরসিতে অন্তর্ভুক্ত ৩,১১,২১,০০৪ জন ব্যক্তির নাম

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  31 Aug 2019 7:13 AM GMT

গুয়াহাটিঃ বহু কল্পনা জল্পনা এবং দীর্ঘ প্ৰতীক্ষার পর অবশেষে রাজ্যে প্ৰকাশ পেল চূড়ান্ত রাষ্ট্ৰীয় নাগরিক পঞ্জির(এনআরসি)। সমস্ত দাবি ও ওজর আপত্তি প্ৰক্ৰিয়ার নিষ্পত্তির পর মোট ৩,১১,২১,০০৪ জন ব্যক্তির নাম চূড়ান্ত এনআরসিতে অন্তর্ভুক্তির যোগ্য পাওয়া গিয়েছে। নাম অন্তর্ভুক্তির জন্য দাবি না জানানো সহ মোট ১৯,০৬,৬৫৭ জনের নাম নাগরিক পঞ্জি থেকে বাদ পড়েছে। এনআরসির রাজ্য সমন্বয়ক প্ৰতীক হাজেলা এক বিবৃতিতে এখবর জানিয়েছেন।

বিবৃতিতে তিনি বলেছেন,সুপ্ৰিম কোর্টের নির্দেশ অনু্যায়ী ২০১৩ সালে অসমে এনআরসি নবায়ন প্ৰক্ৰিয়ার কাজ শুরু হয়। তখন থেকেই শীর্ষ আদালত অনআরসি নবায়ন প্ৰক্ৰিয়া সূক্ষ্মভাবে এ কাজের তদারক করে আসছে। নাগরিকত্ব(নাগরিকের পঞ্জীয়ন এবং রাষ্ট্ৰীয় পরিচয়পত্ৰ প্ৰদান)বিধি,২০০৩-এর অধীনস্থ ৪এ ধারার আধারে সম্পন্ন হওয়া এনআরসি উন্নীতকরণ প্ৰক্ৰিয়া দেশের অন্যান্য অংশের জন্য প্ৰযোজ্য বিধির সঙ্গে মিলবে না। এই নিয়মাবলি অসম চুক্তির ভিত্তিতে নির্ণিত ১৯৭১ সালের ২৪ মার্চ(মধ্যরাত)-এর সময়সীমা অনু্যায়ী প্ৰস্তুত করা হয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে,২০১৫ সালের মে-র শেষ দিকে এনআরসির আবেদনপত্ৰ গ্ৰহণের প্ৰক্ৰিয়া শুরু হয় এবং ৩১ আগস্ট তা শেষ হয়। মোট ৩,৩০,২৭,৬৬১ জন ব্যক্তি ৬৮,৩৭,৬৬০টি আবেদনপত্ৰের মাধ্যমে এনআরসিতে নাম অন্তর্ভুক্তির জন্য আবেদন জানান। এরপরই আবেদনপত্ৰ সমূহ পরীক্ষা নিরীক্ষার কাজ শুরু হয়। এনআরসি নবায়নের এই বিশাল প্ৰক্ৰিয়ায় রাজ্য সরকারের ৫২ হাজার অফিসার-কর্মী দীর্ঘ সময়ের জন্য কাজে নিয়োজিত হন। অন্তর্ভুক্তি এবং নাম ছাঁটার সিদ্ধান্ত এই সমস্ত আইনসিদ্ধ অফিসাররাই নিয়েছেন। এনআরসি নবায়ন প্ৰক্ৰিয়া বস্তুনিষ্ঠতা ও স্বচ্ছতার সঙ্গে নিখুঁতভাবে রূপায়ণ করা হয়েছে। প্ৰক্ৰিয়ার প্ৰতিটি স্তরে আবেদনকারীদের দাবি প্ৰতিপন্ন করার পর্যাপ্ত সু্যোগ দেওয়া হয়েছে।

হাজেলা আরও বলেন,সুপ্ৰিম কোর্টের নির্দেশ অনু্যায়ী ২০১৮ সালের ৩০ জুলাই ২,৮৯,৮৩,৬৭৭ জনের নাম যোগ্যতার ভিত্তিতে অন্তর্ভুক্ত করে এনআরসির সম্পূর্ণ খসড়া প্ৰকাশ করা হয়েছিল। তারপর বাদ পড়া আবেদনকারীর বিপরীতে মোট ৩৬,২৬,৬৩০ জন ব্যক্তির কাছ থেকে দাবি প্ৰপত্ৰ পাওয়া গেছে। সম্পূর্ণ খসড়ায় ঠাই পাওয়া মোট ১,৮৭,৬৩৩ জন আবেদনকারীর অন্তর্ভুক্তির বিরুদ্ধে আপত্তি পত্ৰ জমা পড়ে। অন্তর্ভুক্তির অযোগ্য বিবেচিত ১,০২,৪৬২ জন সদস্যের নাম সন্নিবিষ্ট অন্য একটি নাম ছুটদের অতিরিক্ত খসড়া তালিকা ২০১৯-এর ২৬ জুন প্ৰকাশ করা হয়। ইতইমধ্যে অন্তর্ভুক্ত লোকেদের নিয়ে দাবি ও আপত্তি নিষ্পত্তি করার তথা ৪(৩)ধারার অধীনে ব্যবস্থাবলি কার্যকরী করার পর ৩,১১,২১,০০৪ সদস্যের নাম চূড়ান্ত এনআরসিতে অন্তর্ভুক্তির জন্য যোগ্য বিবেচিত হয়। দাবি না জানানো ব্যক্তিরা সহ মোট ১৯,০৬,৬৫৭ জনের নাম চূড়ান্ত এনআরসি থেকে বাদ পড়ে।

বিবৃতিতে আরও জানানো হয়েছে,জনসাধারণ আজ সকাল ১০টা থেকে সংযোজনী অন্তর্ভুক্তির তালিকার প্ৰতিলিপি এনআরসি সেবাকেন্দ্ৰ,রাজস্ব সার্কল অফিসার,জেলাশাসকের কার্যালয়ে কাজ চলার সময় দেখতে পারবেন। অন্তর্ভুক্তি এবং নাম বাদ পড়া উভয়ের স্থিতি এনআরসির ওয়েবসাইট(www.nrcassam.nic.in)-এ অনলাইনে দেখা যাবে।

দাবি এবং আপত্তির ফলাফলে কোনও ব্যক্তি অসন্তুষ্ট হলে তাঁরা বিদেশি ট্ৰাইবুনালে আবেদন জানাতে পারবেন।

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ এনআরসি-র কাজে জড়ানো হয়েছে ৬২ হাজারের বেশি কর্মীকে

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: National Register of Citizens (NRC) final list 2019 Declared | The Sentinel News | Assam News

Next Story