Top
undefined
Begin typing your search above and press return to search.

রাস্তায় জমে যাওয়া জল নালায় ঠেলে দিয়ে প্ৰশংসা কুড়োলেন কর্নাটকের পুলিশ অফিসার

রাস্তায় জমে যাওয়া জল নালায় ঠেলে দিয়ে প্ৰশংসা কুড়োলেন কর্নাটকের পুলিশ অফিসার

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  30 Sep 2019 10:40 AM GMT

টুইটার এমন একটা মাইক্ৰো ব্লগিংসাইট যেখানে আপনি খুঁজে পাবেন সবকিছুই। সম্প্ৰতি আমাদের নজর কেড়েছে এমন একটা ভিডিও যা প্ৰত্যেককেই গর্বিত করবে এবং এর জন্য ধন্যবাদ জানাতেই হয় কর্নাটক পুলিশকে। যে ভিডিওটি আমরা আপনাদের সামনে তুলে ধরছি সেটি কর্নাটকের বেলগাম-এর। ওই ভিডিওতে যে শিরোনাম শেয়ার করা হয়েছে তা হলো ‘এধরনের পুলিশ কর্মী সমাজের আদর্শ,তাদের কুর্নিশ জানাই। ৪৩ সেকেন্ডের এই ক্লিপে দেখানো হয়েছে,একজন পুলিশ অফিসার শহরের একটি রাস্তায় জমে যাওয়া বৃষ্টির জল নিষ্কাশনের চেষ্টা করছেন যাতে রাস্তায় বাড়তি জল নালায় ঠেলে দেওয়া যায়। একা হাতেই এই গুরু দারিত্ব পালন করছেন তিনি। তাই তাঁকে হিরো বলতেই হয়।

ছবিতে পুলিশ অফিসারকে দেখা যাচ্ছে কোদাল হাতে নালার মুখ খুলে দিতে,যাতে রাস্তার জমা জল তরতর করে নালায় নেমে যায়। নিজের শহর সাফ সুতরো রাখতে জলে নেমে নোংরা আবর্জনা ঘাটাতে পুলিশ অফিসারটির যে কোনও সমস্যাই হচ্ছে না ভিডিও তারই প্ৰমাণ। নালা সাফ করা তাঁর কাজের তালিকাভুক্ত নয় যদিও কিন্তু মানুষের চলাচলের সুবিধার্থে তিনি তাই করছেন।

ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পর মানুষ ওই পুলিশ অফিসারকে কুর্নিশ জানিয়েছেন। এমনকি আইপিএস অফিসার ডি রূপা বলেন, ‘এটা পুলিশের কাজ নয়,তবুও তিনি করছেন’ এই ক্যাপসন দিয়ে ভিডিওটি শেয়ার করেন। ‘পুলিশ যখন নিজের কর্তব্যের বাইরে গিয়ে এজাতীয় বাড়তি কাজ করে তখন তাঁকে স্বাগত জানাতেই হয়। তবে এর অর্থ এটা নয় যে মানুষ পুলিশকে প্ৰশ্ন করবো না যখন তারা ভুল পথে হাঁটেন। প্ৰয়োজন রয়েছে দুটোরই’।

আরও একজন সোশিয়েল মিডিয়া ব্যবহারকারী লিখেছেন ‘যেকোনও সভ্য সমাজে সামাজিক দায়িত্ববোধ থাকাটা অত্যন্ত প্ৰয়োজন। এই মুহূর্তে ভারতে এধরনের মানুষেরই প্ৰয়োজন। তাই ওই পুলিশ আধিকারিককে কুর্নিশ জানাতেই হয়’।

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ যানবাহন আইন লঙ্ঘন,জরিমানা গচ্চা দিয়ে ক্ষুব্ধ ইঞ্জিনিয়ার

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: Woman allegedly killed by her husband in Samuguri | The Sentinel News

Next Story