সংবাদ শিরোনাম

চূড়ান্ত ও পরিবার ভিত্তিক এনআরসি প্ৰকাশ পাচ্ছে ১৪ সেপ্টেম্বর

এনআরসি

গুয়াহাটিঃ রাষ্ট্ৰীয় নাগরিক পঞ্জির(এনআরসি)সমন্বয়কের কার্যালয় আগামি ১৪ সেপ্টেম্বর একত্ৰিত(কনসোলিডেটেড)এনআরসি-র তালিকা প্ৰকাশ করবে। এনআরসিতে আবেদনকারী এক একটি পরিবারের পূর্ণাঙ্গ ছবি এদিন তুলে ধরবে সমন্বয়কের কার্যালয়। এনআরসিতে অন্তর্ভুক্ত এবং নাম ছুট প্ৰত্যেকের নাম পরিবার ভিত্তিক প্ৰকাশ করা হবে।

মোট ৩,৩০,২৭,৬৬১ জন ব্যক্তি(৬৮,৩৭,৬৬০টি আবেদনের মাধ্যমে)চূড়ান্ত এনআরসিতে নাম অন্তর্ভুক্তির আবেদন করেছিলেন। চূড়ান্ত এনআরসির তালিকা প্ৰকাশিত হয়েছিল ২০১৯-এর ৩১ আগস্ট। মোট আবেদনকারীর মধ্যে ৩,১১,২১,০০৪ জন ব্যক্তির নাম এনআরসিতে অন্তর্ভুক্তির যোগ্য হিসেবে পাওয়া গেছে। ১৯,০৬,৬৫৭ জন আবেদনকারী এনআরসিতে অন্তর্ভুক্তির অযোগ্য ঘোষিত হয়েছেন। মঙ্গলবার এনআরসি কর্তৃপক্ষের কার্যালয় সূত্ৰে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে একত্ৰিত এনআরসি-র তালিকা শুধু অনলাইনেই দেখা যাবে। রাজ্যের মানুষ www.nrcassam.nic.in এ লগিং করে নিজেদের নাম চেক করতে পারবেন।

এদিকে এনআরসি কর্তৃপক্ষ গত ৩১ আগস্ট এনআরসি-র পরিপূরক তালিকাটি প্ৰকাশ করে। দাবি ও ওজর আপত্তি নিষ্পত্তির পর পরিবার ভিত্তিক এনআরসি-র পূর্ণাঙ্গ তালিকা প্ৰকাশের জন্য জনগণের তরফ থেকে এনআরসি কর্তৃপক্ষের কাছে দাবি এসেছিল। সেকথা মাথায় রেখেই কর্তৃপক্ষ এনআরসিতে আবেদনকারী প্ৰতিটি পরিবারের ছবি ১৪ সেপ্টেম্বর অনলাইনে প্ৰকাশ করবে। একত্ৰিত এনআরসির এই তালিকা শুধুমাত্ৰ অনলাইনেই তুলে ধরা হবে।

এনআরসি কর্তৃপক্ষ আরও জানিয়েছেন,অযোগ্য ঘোষিতদের আবেদন কেন খারিজ করা হয়েছে তার কারণ খুব শিগগিরই জানানো হবে। এনআরসি কর্তৃপক্ষের ঘোষণায় আরও বলা হয়েছে,নাম ছুটদের রিজেকশনের সার্টিফায়েড কপি ইস্যু করার জন্য জনগণের কাছ থেকে আমরা প্ৰস্তাব পেয়েছি। আবেদন নাকচ হওয়া বা রিজেকশনের সার্টিফায়েড কপি এখনই তুলে দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না। কারণ এরজন্য সময়ের প্ৰয়োজন রয়েছে বলে কর্তৃপক্ষের বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়েছে। বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে,আবেদনকারীরা এটা ভাল করেই জানেন যে নির্ধারিত সেবা কেন্দ্ৰ এড়িয়ে    তাদের শুনানি নেওয়া হয়েছে। বর্তমানে এনআরসি অফিসাররা যে অর্ডারগুলি দিয়েছিলেন সেগুলি সংগ্ৰহের কাজ চলছে। নাম ছুটদের ফের আপিল জানানোর জন্য রিজেকশনের সার্টিফায়েড কপির প্ৰয়োজন। এই নথি নাম ছুটদের হাতে শীঘ্ৰ তুলে দেওয়ার প্ৰয়াস জারি আছে-উল্লেখ করা হয় বিবৃতিতে। এব্যাপারে সময়সীমা দিয়ে শীঘ্ৰই ঘোষণা করা হবে।

অন্যদিকে,রাষ্ট্ৰীয় নাগরিক পঞ্জির(এনআরসি)চূড়ান্ত খসড়া প্ৰকাশিত হয়েছিল ২০১৮ সালের ৩০ জুলাই। ওই তালিকায় ঠাঁই পেয়েছিল মোট ২,৮৯,৮৩,৬৭৭ জনের নাম। এরপর নামছুটদের বিরুদ্ধে ৩৬,২৬,৬৩০ জন ব্যক্তির কাছ থেকে আবেদনপত্ৰ পাওয়া গেছে। পরে বাদ পড়া আবেদনকারীদের কাছ থেকে দাবি ও আপত্তি গ্ৰহণ পর্ব শুরু হয়। এনআরসি-র খসড়ায় অন্তর্ভুক্ত লোকেদের নাম সিটিজেনশিপ(রেজিস্ট্ৰেশন অফ সিটিজেনস অ্যান্ড ইস্যু অফ ন্যাশনাল আইডেনটিটি কার্ডস)রুলসের ৪(৩)শর্তের অধীনে ভেরইফিকেশনের কাজ সম্পন্ন করা হয়। খসড়া এনআরসিতে অন্তর্ভুক্ত ১,৮৭,৬৩৩ জন ব্যক্তির বিরুদ্ধে আপত্তিপত্ৰও পাওয়া গিয়েছিল। এরপর ২০১৮ সালের ২৬ জুন নাম ছুটদের একটি তালিকা প্ৰকাশ করা হয়েছিল এবং ওই তালিকা থেকে ১,০২,৪৬২ জনের নাম কর্তন করা হয়। সমস্ত ধারাবাহিকতার অঙ্গ হিসেবে ১৪ সেপ্টেম্বর এনআরসির পূর্ণাঙ্গ তালিকা পরিবার ভিত্তিক প্ৰকাশ করা হচ্ছে।

 

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ এনআরসির তথ্য সম্পর্কে অন্ধকারে দিশপুর,হাজেলাকে চিঠি সরকারের

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: All Assam Garia Maria Desi Jatiya Parishad staged sit-in demonstration over NRC in Guwahati