Begin typing your search above and press return to search.

সরকারি জমি থেকে দখলদারদের উচ্ছেদ করতে জেলাশাসকদের ক্ষমতা দেওয়া হলো

সরকারি জমি থেকে দখলদারদের উচ্ছেদ করতে জেলাশাসকদের ক্ষমতা দেওয়া হলো

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  20 Jan 2020 7:47 AM GMT

গুয়াহাটিঃ রাজ্যে সরকারি জমি যারা দখল করে রেখেছে তাদের উচ্ছেদ করতে জেলাশাসকদের ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে। ২০১৯ সালের অসম ভূমি নীতিতে বলা হয়েছে,সংরক্ষিত জমি এবং বিভিন্ন ল্যান্ড সিলিং আইনে অধিগ্ৰহণ করা সহ দখনীকৃত সরকারি জমি সম্পর্কে বিস্তারিত রিপোর্ট নিয়মিত সংগ্ৰহ করতে এবং ওই সমস্ত জমির দখলদারদের উচ্ছেদ করতে সক্ৰিয় ব্যবস্থা গ্ৰহণ করার জন্য জেলাশাসকদের বলা হয়েছে। সরকারি ভূমি নীতি অনু্যায়ী ওই সমস্ত জমিতে সংস্থাপনের জন্য যারা-উপযুক্ত নয় তাদের উচ্ছেদ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

নতুন অনুমোদিত ভূমি নীতি অনু্যায়ী,সরকারি জমিতে ড্ৰেন ও সড়ক দখল করে রাখা ব্যক্তিদের অপসারণে যে খরচ হবে সেই অর্থ উচ্ছেদ হওয়া লোকেদেরই বহন করতে হবে। নতুন আইনে আরও বলা হয়েছে,‘এধরনের জমি দখল করে রাখা ও তা হস্তান্তর বাবদ কোনও পাট্টাদারের অনুকূল নো অবজেকশন সার্টিফিকেট(এনওসি)দেওয়া হবে না’।

এদিকে,রাজ্যের রাজস্ব ও দুর্যোগ প্ৰশমন বিভাগ সব জেলাশাসকদের ২০১৯-এর অসম ভূমি নীতি আইনের প্ৰতি গুরুত্ব দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে। সাম্প্ৰতিক ভূমি নীতিতে সমস্ত সরকারি জমি দখলমুক্ত করার এবং সেই সঙ্গে উচ্ছেদের ওপর বিশেষ গুরুত্ব আরোপ করা হয়েছে। ২০১৯-এর ২১ অক্টোবর রাজ্য মন্ত্ৰিসভা নতুন ভূমিনীতিটি অনুমোদন করে। ১৯৮৯ সালের ভূমি নীতির স্থলে এই নতুন ভূমি নীতি গ্ৰহণ করা হয়েছে।

রাজ্যের মোট ৩৩টি জেলার মধ্যে ২৯টি জেলার সরকারি জমি বেআইনিভাবে দখলের রিপোর্ট রয়েছে। সাম্প্ৰতিক এক পরিসংখ্যান মতে,সরকারি জমি বেদখলের ক্ষেত্ৰে শীর্ষে রয়েছে তিনসুকিয়া জেলা। এই জেলায় সর্বাধিক ৯২,১১৫.১৮ হেক্টর জমি দখলদারদের কবলে রয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে লখিমপুর জেলা। এই জেলায় ৫৪,২৬৪.৬১ হেক্টর জমি দখলদারদের কবলে রয়েছে। ওদালগুড়িতে দখল হয়েছে ৩৮,৩১৪.৯৩৯ হেক্টর সরকারি জমি। তাছাড়া ডিব্ৰুগড়ে ৩৮,০৩৩.০৬ হেক্টর,ধেমাজিতে ৩৭,২২৪.০৫৯ হেক্টর,গোয়ালপাড়ায় ৩১,২৬৮.৯৭ হেক্টর,বিশ্বনাথে ২৭,২১৮.২৩৯ হেক্টর,নগাঁওয়ে ২৩,৫৫৪.১০৫ হেক্টর,বরপেটায় ২০,২৫২.০৫ হেক্টর এবং হোজাই জেলায় ১৯,৭৭৩.৪০১ হেক্টর জমি দখলদারীদের কবলে রয়েছে। তবে ডিমা হাসাও জেলায় এধরনের সরকারি জমি দখল করে রাখার কোনও রিপোর্ট পাওয়া যায়নি। তিনটি জেলা কামরূপ(মেট্ৰো),কার্বি আংলং এবং পশ্চিম কার্বি আংলং এই ইস্যু নিয়ে রাজস্ব ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগকে এখনও পর্যন্ত তাদের রিপোর্ট দাখিল করেনি। নতুন অনুমোদিত ভূমি আইন আনু্যায়ী জেলাশাসকরা সরকারের নির্দেশ অনু্যায়ী প্ৰতিটি জেলায় উচ্ছেদের স্কিম ও পরিকল্পনা প্ৰস্তুত করবেন।

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ সংঘর্ষ বিরতি চুক্তিতে পৌঁছলো এনডিএফবি(এস)-সরকার

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: Morigaon MLA Rama Kanta Deuri’s escort vehicle hit an E-Rickshaw, one seriously injured.

Next Story