Begin typing your search above and press return to search.

সময় অন্তর এনআরসি নবায়ন দিশপুরের মতামত ও আরজিআই-র সবুজ সঙ্কেতের অপেক্ষায়

সময় অন্তর এনআরসি নবায়ন দিশপুরের মতামত ও আরজিআই-র সবুজ সঙ্কেতের অপেক্ষায়

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  26 Oct 2019 11:30 AM GMT

গুয়াহাটিঃ সময় অন্তর এনআরসি নবায়ন সংক্ৰান্ত প্ৰস্তাব নিয়ে সিদ্ধান্ত এখন দিশপুরের মতামত ও আরজিআই-র(রেজিস্ট্ৰার জেনারেল অফ ইন্ডিয়া)সবুজ সঙ্কেতের অপেক্ষায় রয়েছে। এনআরসিতে(রাষ্ট্ৰীয় নাগরিক পঞ্জি)নাম অন্তর্ভুক্তির আবেদন জানানোর শেষ তারিখ ছিল ২০১৫ সালের ৩১ আগস্ট এবং চূড়ান্ত এনআরসি প্ৰকাশিত হয় এর চার বছর পর ২০১৯-এর ৩১ আগস্টে।গত চার বছরে যে সব শিশুর জন্ম হয়েছে সেই সব শিশুর নাম এনআরসিতে অন্তর্ভুক্ত হয়নি। বর্তমানে আরও শিশুর জন্ম হবে। তাই এই সমস্ত শিশুর নাম কি এনআরসি নবায়ন প্ৰক্ৰিয়া থেকে বাদ পড়বে? একথা মাথায় রেখেই এনআরসি কর্তৃপক্ষ মনে করছেন,সময় অন্তর এনআরসি নবায়নের প্ৰয়োজনীয়তা।

এনআরসি-র রাজ্য সমন্বয়ক প্ৰতীক হাজেলা প্ৰতি ছমাস অন্তর এনআরসি নবায়নের জন্য আরজিআই-র কাছে ইতিমধ্যেই একটি প্ৰস্তাব দাখিল করেছেন। তবে বিষয়টি নিয়ে আরজিআই-র অনুভূতি হলো,সময় অন্তর এনআরসি নবায়নের ব্যাপারে রাজ্য সরকারের মতামতের প্ৰয়োজন রয়েছে।

আরজিআই-এর সাম্প্ৰতিক ডাকা এক বৈঠকে খোদ আরজিআই এনআরসি কর্তৃপক্ষকে সময় অন্তর এনআরসি নবায়নের প্ৰস্তাবটি রাজ্য সরকারের কাছে দাখিল করার পরামর্শ দিয়েছিলেন। রাজ্য সরকারই ইস্যুটি নিয়ে তাদের মতামত আরজিআই-এর কাছে পাঠানো উচিত। কারণ ইস্যুটি নিয়ে চূড়ান্ত কথা বলবে আরজিআই,যেহেতু এনআরসি আরজিআই-এরই বিষয়।

চূড়ান্ত রাষ্ট্ৰীয় নাগরিক পঞ্জিতে(এনআরসি)নাম অন্তর্ভুক্তির জন্য রাজ্যের ৩,৩০,২৭,৬৬১ জন ব্যক্তি ৬৮,৩৭,৬৬০টি আবেদনপত্ৰের মাধ্যমে আবেদন দাখিল করেছিলেন। আবেদনকারীদের নথিপত্ৰ পরীক্ষা ও ব্যাপক শুনানির পর ৩,১১,২১,০০৪ জন ব্যক্তির নাম চূড়ান্ত এনআরসিতে অন্তর্ভুক্তির যোগ্য বিবেচিত হয়। চূড়ান্ত এনআরসিতে নাম অন্তর্ভুক্তির অযোগ্য ঘোষিত হন ১৯,০৬,৬৫৭ জন। রাজ্যে চূড়ান্ত এনআরসি প্ৰকাশিত হয়েছিল চলতি বছরের ৩১ আগস্টে।

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ ছট পূজার জন্য প্ৰয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্ৰহণের নির্দেশ কামরূপ জেলা প্ৰশাসনের

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: Several acres of Paddy Fields Destroyed by Wild Jumbos in Digboi

Next Story