Begin typing your search above and press return to search.

‘এনআরসি থেকে বিদেশিদের বাদ দিন,অন্তর্ভুক্ত করুন ভূমিপুত্ৰদের’

‘এনআরসি থেকে বিদেশিদের বাদ দিন,অন্তর্ভুক্ত করুন ভূমিপুত্ৰদের’

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  7 Sep 2019 7:42 AM GMT

গুয়াহাটিঃ সদ্য প্ৰকাশিত রাষ্ট্ৰীয় নাগরিক পঞ্জি(এনআরসি)নিয়ে এবার মুখ খুললো বোড়ো সাহিত্য সভা(বিএসএস)। চূড়ান্ত এনআরসিতে অবৈধভাবে যারা নাম অন্তর্ভুক্ত করেছে তাদের নাম ছেঁটে বিদেশি ট্ৰাইবুনালে(এফটি)পাঠানোর আর্জি জানিয়েছে বোড়ো সাহিত্য সভা। একইসঙ্গে সাহিত্য সভা অসমের যে সকল ভূমিপুত্ৰের নাম বাদ পড়েছে,তাঁদের অবিলম্বে নাগরিক পঞ্জিতে অন্তর্ভুক্ত করার দাবি জানিয়েছে। সভা বলেছে,ভূমিপুত্ৰদের এফটিতে না পাঠিয়ে তাঁদের নাম এনআরসিতে অন্তর্ভুক্ত করতে হবে। শুক্ৰবার দিশপুর প্ৰেসক্লাবে এক সাংবাদিক সল্লেলনে বক্তব্য রাখছিলেন বিএসএস সভাপতি তোরেন বোড়ো। তিনি বলেন,‘এনআরসিতে নাম অন্তর্ভুক্তির অযোগ্য বলে যাদের নাম ঘোষণা করা হয়েছে বিদেশি ট্ৰাইবুনালের মাধ্যমে তাদের চিহ্নিত করে বহিষ্কারের বিষয়টি সুনিশ্চিত করা উচিত। এনআরসি থেকে ব্যাপক সংখ্যক স্থানীয় মানুষের নাম বাদ পড়েছে। কেন তাঁদের নাম ছাটা হলো-প্ৰশ্ন তোলেন তিনি। নামছুট ভূমিপুত্ৰ লোকেদের বিদেশি ট্ৰাইবুনালে পাঠানোর পরিবর্তে তাদের নাম নাগরিক পঞ্জিতে অন্তর্ভুক্ত করতে হবে-দাবি করেন সাহিত্য সভার সভাপতি। সুপ্ৰিম কোর্টের নির্দেশ অনু্যায়ী ভূমিপুত্ৰদের নাম অন্তর্ভুক্ত করতে হবে।

অন্যদিকে,‘যে সমস্ত বিদেশির নাম অবৈধভাবে এনআরসিতে ঢুকেছে তাদের নাম তাদের নাম নাগরিক পঞ্জি থেকে ছেঁটে দিয়ে এদের বহিষ্কার সুনিশ্চিত করে এফটিতে পাঠানোর দাবি জানানো হয় সভার তরফে’।

বিএসএস-এর উপসভাপতি কমলা কান্ত মুসাহারি সাংবাদিক সম্মেলনে বলেন,‘যারা তদানীন্তন পূর্ব পাকিস্তান থেকে অসমে এসেছিল অসম চুক্তির মাধ্যমে তাঁরা নাগরিকত্ব পেয়ে গেছে। পরবর্তী সময়ে বাংলাদেশ থেকে যারা অসমে ঢুকেছে এনআরসি নবায়নের ফলে তাদের চিহ্নিত করা গেছে। তবে এনআরসি থেকে যে ১৯ লাখের বেশি লোকের নাম বাদ পড়েছে তাদের মধ্যে প্ৰায় ৪ লাখ অসমের ভূমিপুত্ৰই হবেন। তাই এটা অনেকটাই পরিস্কার যে এনআরসি নবায়নের ফলে প্ৰায় ১৫ লাখ মানুষ সন্দেহভাজন বিদেশির তালিকায় পড়েছেন। তিনি বলেন,রাজ্যে ইতিমধ্যেই ২ লাখ ‘ডি’ ভোটার রয়েছেন। তাই সরকারের এখন প্ৰথম কর্তব্য হচ্ছে ১৭ লাখ মানুষকে(এনআরসি ছুট ১৫ লাখ ও ২ লাখ ‘ডি’ ভোটার)এফটির বিচারের পর বহিষ্কার করা। তিনি বলেন,১৯৫১ সালকে ভিত্তি হিসেবে নিয়ে রাষ্ট্ৰীয় পর্যায়ে যদি এনআরসি প্ৰস্তুত করা হয় তাহলে অসমকে সেখানে অন্তর্ভুক্ত করতে হবে।

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ এনআরসি ভবিষ্যৎ প্ৰক্ৰিয়ায় ‘লঞ্চ প্যাড’ হতে পারেঃ অধ্যক্ষ

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: 36 km bridge worth Rs 2625 cr to be constructed at Kaziranga National Park

Next Story