চিকিৎসকদের রাজ্যের বাগান ছাড়ার সম্ভাবনা প্ৰকট হচ্ছে

চিকিৎসকদের রাজ্যের বাগান ছাড়ার সম্ভাবনা প্ৰকট হচ্ছে

গুয়াহাটিঃ রাজ্যের চা বাগানগুলি থেকে আগামি দিনে চিকিৎসকের পাততাড়ি গুটিয়ে নেওয়ার প্ৰবণতা প্ৰকট হওয়ার লক্ষণ দেখা যাচ্ছে। যোরহাট জেলার টিয়ক টি এস্টেটে কর্তব্যরত ডাক্তার দেবেন দত্তকে উন্মত্ত লোকেরা নৃশংসভাবে গণপ্ৰহারে হত্যা করার ঘটনার প্ৰেক্ষিতে পাঁচজন ডাক্তার বাগান ছাড়ার সিদ্ধান্ত ইতিমধ্যেই নিয়েছেন।

‘উজান অসমের ওই পাঁচজন ডাক্তার তাঁদের পদত্যাগ পত্ৰ ইতিমধ্যেই বাগান কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠিয়ে দিয়েছেন। রাজ্য সরকার বাগানের চিকিৎসা ব্যবস্থা উন্নত করার লক্ষ্যে অনেক তরুণ চিকিৎসককে বাগানে নিযুক্তি দিয়েছিল। নিরাপত্তার অভাবে এই সমস্ত চিকিৎসকরা এখন বাগান ছাড়ার পরিকল্পনা করছেন। ডা দেবেন দত্তকে মানুষরূপী দানবরা গণপ্ৰহারে নারকীয়ভাবে হত্যা করায় বাগান এবং রাজ্যের প্ৰত্যন্ত অঞ্চলে কর্তব্যরত চিকিৎসকদের মনে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে’। ইন্ডিয়ান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের(আইএমএ)অসম শাখার জনৈক কর্মকর্তা একথা বলেন।

কর্মকর্তাটি আরও বলেছেন,রাজ্য সরকার যদি ডাক্তারদের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ হয় তাহলে অনেক চা বাগান ডাক্তার শূন্য হয়ে পড়বে। স্বাস্থ্য বিভাগের একটি সূত্ৰ রাজ্যের বাগানগুলো চিকিৎসকহীন হওয়ার সম্ভাবনা সম্পর্কে ভীতি প্ৰকাশ করেছে।

রাজ্য সরকার আকর্ষণীয় পে-প্যাকেজের প্ৰস্তাব রাখা সত্ত্বেও অনেক তরুণ চিকিৎসক বাগানের চাকরিতে যোগ দিতে অস্বীকার করছেন। শুধু তাই নয়,বর্তমানে বাগানে যে সমস্ত চিকিৎসকরা কাজ করছেন তাঁরাও এখন কাজ চালিয়ে যেতে ইচ্ছুক নন। অনেক চিকিৎসক আবার নিজেদের ডিউটিতে গরহাজির থাকছেন-জানিয়েছে সূত্ৰটি। ডা. দত্তের হত্যাকাণ্ড অসমের বাগান সমূহে কর্তব্যরত চিকিৎসকদের ওপর নিগ্ৰহের এটি সবচেয়ে জঘন্যতম ঘটনা। ‘বর্ষীয়ান চিকিৎসক ডা. দত্তের নির্মম হত্যাকাণ্ড সমস্ত সহ্যের সীমা রেখা ছাপিয়ে গেছে। কর্মস্থানে ডাক্তারদের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে কর্তৃপক্ষের মোক্ষম ব্যবস্থা গ্ৰহণের এটাই চূড়ান্ত সময়-বলেছে আইএমএ।

আইএমএ আসাম মেডিকেয়ার সার্ভিস পারসন্স এবং ২০১১ সালের ইন্সটিটিউশন প্ৰিভেনশন অফ ভায়োলেন্স অ্যান্ড ড্যামেজ টু প্ৰোপারটিজ আইনটি সক্ৰিয়ভাবে রূপায়ণ করার দাবি জানিয়েছে। ওই আইন অনু্যায়ী কোনও চিকিৎসককে নিগ্ৰহ বা আক্ৰমণ করা জামিন অযোগ্য এবং বিচার্য অপরাধ হিসেবে গণ্য হবে।

এদিকে ইন্ডিয়ান টি অ্যাসোসিয়েশন(আইটিএ)এবং কনসালটেটিভ কমিটি অফ প্ল্যান্টেশন অ্যাসোসিয়েশন(সিসিপিএ)এক প্ৰেস বিবৃতিতে বলেছে,চিকিৎসকের ওপর পাশবিক আক্ৰমণের সাম্প্ৰতিক এই ঘটনায় বাগান কর্তৃপক্ষের তরফে বাগানের হাসপাতাল চালানো কঠিন হয়ে পড়বে। তাই রাজ্য সরকারের এই বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করে হাসপাতালগুলোর দায়িত্ব নিজেদের কাঁধে নেওয়া উচিত। সেই সঙ্গে কেন্দ্ৰ ও রাজ্য সরকারের স্বাস্থ্য স্কিমের অধীনে হাসপাতালগুলো চালানোর এটা চূড়ান্ত সময় বলে প্ৰেস বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

ওদিকে আসু ডাক্তারদের নিরাপত্তা দেওয়ার পাশাপাশি গণপ্ৰহারে নিহত চিকিৎসক ডা. দেবেন দত্তের মামলাটি ফাস্ট ট্ৰ্যাক কোর্টে বিচার করে দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়ার দাবি জানিয়েছে।

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: Assam Medical Service Association & IMA staged 24 hr strike in Tinsukia | The Sentinel | Assam News

logo
Sentinel Assam- Bengali
bengali.sentinelassam.com