Begin typing your search above and press return to search.

সত্ৰের জমি দখল মুক্ত করতে সরকারের এগিয়ে আসা উচিতঃ এএসএম

সত্ৰের জমি দখল মুক্ত করতে সরকারের এগিয়ে আসা উচিতঃ এএসএম

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  2 Sep 2019 11:21 AM GMT

গুয়াহাটিঃ রাজ্যে সত্ৰের কতটা জমি জবর দখলকারীদের কব্জায় রয়েছে তার সঠিক পরিমাণ খুঁজে বের করতে যৌথ জরিপ চালাতে দিশপুরের ব্যর্থতার জন্য রবিবার তীব্ৰ অসন্তুষ্টি ও ক্ষোভ প্ৰকাশ করেছে অসম সত্ৰ মহাসভা।

২০১৬ সালে বিজেপি নেতৃত্বাধীন সরকার রাজ্যের ক্ষমতার আসার পর সত্ৰের জমি দখল সম্পর্কে একটা যৌথ জরিপ চালানোর প্ৰস্তাব রাখা হয়েছিল। এব্যাপারে তদানীন্তন রাজস্বমন্ত্ৰী পল্লব লোচন দাস,অসম সত্ৰ মহাসভার প্ৰতিনিধি এবং রাজস্ব বিভাগের কর্মকর্তাদের মধ্যে একটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছিল। ওই বৈঠকে রাজস্ব বিভাগ এবং সত্ৰ মহাসভার তরফ থেকে সত্ৰের জমির ওপর এক যৌথ জরিপ চালানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল।

‘কিন্তু আজ অবধি কোনও যৌথ জরিপ চালানো হয়নি। সত্ৰের জমি এভাবে দখলদারদের কবলে থাকাটা অত্যন্ত উদ্বেগের বিষয়। ‘মহাপুরুষ শ্ৰীমন্ত শঙ্করদেবের তিথি পালনের সময় আমরা এটা প্ৰত্যক্ষ করছি যে রাজ্য সরকার এবং সত্ৰ মহাসভার মধ্যে দখলি কৃত সত্ৰের জমির পরিমাণ নিয়ে যথেষ্ট পার্থক্য রয়েছে। এব্যাপারে যৌথ জরিপই বিষয়টির সমাধানে সহায়ক হবে’। অসম সত্ৰ মহাসভার সাধারণ সম্পাদক কুসুম কুমার মহন্ত দ্য সেন্টিনেলকে একথা বলেন।

মহন্ত মরিগাঁওয়ের তরাবরি কলশিলা সত্ৰের সত্ৰাধিকার। তিনি বলেন,অসম সরকার সত্ৰের কতটা জমি দখলদারদের কব্জায় রয়েছে তা জানার জন্য জেলাশাসকদের জরিপ চালানোর জন্য বলা হয়েছিল। কিন্তু ওই সমীক্ষা চালানোর সময় জেলাশাসকরা সত্ৰের প্ৰতিনিধিদের জড়াননি। সত্ৰের কি পরিমাণ জমি দখলদারদের হেফাজতে রয়েছে তা জানার জন্য আমরা জরিপের কাজে জেলাশাসকদের সহযোগিতা করতে পারতাম-বলেন তিনি।

অসম সত্ৰ মহাসভার(এএসএম)মতে,রাজ্যে ১১৪২টি সত্ৰ রয়েছে। এএসএম-এর মতে ধুবড়ি,বরপেটা,বঙাইগাঁও,কামরূপ,নগাঁও এবং মরিগাঁও সহ বিভিন্ন জেলার ২৬টি সত্ৰের প্ৰায় ৭,০০০ বিঘা জমি দখলদারদের কবলে রয়েছে। লখিমপুর জেলার আদি আলেঙ্গি সত্ৰের প্ৰায় ১৯০০ বিঘা জমি রয়েছে দখলদারদের কবলে। কিন্তু সরকার দাবি করছে মাত্ৰ কয়েকশো বিঘা সত্ৰের জমি বেদখল হয়েছে-উল্লেখ করেন মহন্ত।

তিনি আরও বলেন,মুখ্যমন্ত্ৰী সর্বানন্দ সোনোয়াল এবং তাঁর মন্ত্ৰিসভার অন্যান্য কয়েকজন সদস্য সত্ৰের জমি দখলমুক্ত করার সদিচ্ছা প্ৰকাশ করেছেন ঠিকই,তবে এই সমস্যার সমাধানে সরকারকে কোনও সক্ৰিয় পদক্ষেপ নিতে এখনও দেখা যায়নি। ‘এব্যাপারে যৌথ জরিপ চালানোর এখনও সময় রয়েছে। তাই সরকারকে যৌথ সমীক্ষার ব্যাপার অবিলম্বে এগিয়ে আসা উচিত’-বলেন মহন্ত।

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ রাজ্যে সত্ৰের জমি দখল মুক্ত করতে বিল আসছে

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: 50 Kg Ganja recovered by Nalbari Police based on secret input | The Sentinel News | Assam News

Next Story