রাজ্যের খবর

স্বচ্ছ এনআরসির জন্য রি-ভেরিফিকেশন চান হিমন্ত

হিমন্ত

গুয়াহাটিঃ রাষ্ট্ৰীয় নাগরিক পঞ্জির চূড়ান্ত তালিকা প্ৰকাশের পর রাজ্যের অর্থমন্ত্ৰী হিমন্তবিশ্ব শর্মা এক টুইটে বলেছেন,অনেক ভারতীয় নাগরিকের নাম তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হয়নি যারা ৭১ সালের আগে বাংলাদেশ থেকে রিফিউজি হয়ে এসেছিল। এর কারণ কর্তৃপক্ষ শরণার্থী সার্টিফিকেট গ্ৰহণ করতে অস্বীকার করেছেন।

টুইটে তিনি আরও উল্লেখ করেছেন,অনেকের অভিযোগ মতে বহু নাম তালিকায় ঠাঁই পেয়েছে লিগ্যাসি ডাটার কারসাজির জন্য। ‘আমি এটা বলতে চাই যে কেন্দ্ৰ ও রাজ্য সরকার সীমান্ত জেলায় ২০ শতাংশ এবং বাকি জেলাগুলোতে ১০ শতাংশ রি-ভেরিফিকেশনের যে অনুরোধ জানিয়েছিল,মাননীয় সুপ্ৰিমকোর্টের তাতে অনুমতি দেওয়া উচিত একটা শুদ্ধ ও পরিচ্ছন্ন এনআরসির জন্য’-টুইটে উল্লেখ করেন শর্মা।

এদিকে চূড়ান্ত এনআরসি-র তালিকা নিয়ে আসু অসন্তুষ্টি প্ৰকাশ করেছে এবং এর বিরুদ্ধে তারা সুপ্ৰিমকোর্টে আবেদন জানাবে।

অসম চুক্তির অন্যতম স্বাক্ষরকারী আসু। ১৯৮৫ সালে স্বাক্ষরিত ওই চুক্তিতে অবৈধ বিদেশিদের শনাক্ত করে অসম থেকে বহিষ্কারের কথা উল্লেখ করা হয়েছিল।

উল্লেখ্য,২০১৩ সালে সুপ্ৰিমকোর্টের নির্দেশে অসমে এনআরসি নবায়নের কাজ শুরু হয়। তখন থেকেই শীর্ষ আদালত গোটা প্ৰক্ৰিয়াটির তদারক করছিল।

২০১৫-র মে-র শেষাশেষি এনআরসির আবেদনপত্ৰ গ্ৰহণের প্ৰক্ৰিয়া শুরু হয় এবং শেষ হয় ওই বছরের ৩১ আগস্ট। ৬৮,৩৭,৬৬০টি প্ৰপত্ৰের মাধ্যমে মোট ৩,৩০,২৭,৬৬১ জন সদস্য এনআরসিতে নাম অন্তর্ভুক্তির আবেদন জানিয়েছিলেন।

 

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ চূড়ান্ত এনআরসি থেকে বাদ ১৯,০৬,৬৫৭ জনের নাম

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: Prafulla Kumar Mahanta addresses media in Guwahati | The Sentinel News | Assam News