Begin typing your search above and press return to search.

ভারত-আমেরিকা এখন বিশ্বের কৌশলগত অংশীদারঃ মার্কিন প্ৰেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্ৰাম্প

ভারত-আমেরিকা এখন বিশ্বের কৌশলগত অংশীদারঃ মার্কিন প্ৰেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্ৰাম্প

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  26 Feb 2020 11:40 AM GMT

নয়াদিল্লিঃ আমেরিকার প্ৰেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্ৰাম্প ভারত-মার্কিন সম্পর্কে বিশেষ জোর দিয়েছেন। এই সম্পর্ককে তিনি বিশ্বের একটা ব্যাপক কৌশলগত অংশীদার হিসেবে অভিহিত করেন। এখানে হায়দরাবাদ হাউসে প্ৰধানমন্ত্ৰী নরেন্দ্ৰ মোদির সঙ্গে একপ্ৰস্থ আলোচনার পর এক যৌথ বিবৃতিতে মার্কিন রাষ্ট্ৰপ্ৰধান ট্ৰাম্প বলেন,সন্ত্ৰাসবাদ এবং মাদক চোরাচালান প্ৰতিরোধ সহ বিভিন্ন ক্ষেত্ৰে নতুন পদক্ষেপ নিয়ে এগোতে সম্মত হয়েছে উভয় দেশ। দুই রাষ্ট্ৰপ্ৰধানের মধ্যে এদিন ৩ বিলিয়ন ডলার মূল্যের প্ৰতিরক্ষা চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। এই চুক্তি অনু্যায়ী অত্যাধুনিক আমেরিকান প্ৰতিরক্ষা সরঞ্জাম বিশেষ করে অ্যাপচে কপ্টার ও এমএইচ-৬০ রোমিও হেলিকপ্টার আমেরিকা থেকে কিনবে ভারত। এছাড়াও কিছু আধুনিক সময়াস্ত্ৰও ভারত কিনবে। ট্ৰাম্প আরও বলেন,এরআগে দুদেশের সম্পর্ক এত নিবিড় ছিল না। এদিকে ভারতের বিদেশ মন্ত্ৰক বলেছে,প্ৰতিরক্ষা ক্ষেত্ৰে ভারত-আমেরিকা এখন বিশ্বে একটা শক্তিশালী কৌশলগত অংশীদার হয়ে দাঁড়াবে। উল্লেখ্য,ট্ৰাম্প এদিন ভারতীয় শিল্পপতিদের সঙ্গে একদফা বৈঠক করেছেন।

এদিকে প্ৰধানমন্ত্ৰী নরেন্দ্ৰ মোদি বলেছেন,দুটো দেশ বিশ্বে একটা ব্যাপক কৌশলগত অংশীদারিত্ব গঠন করেছে এবং সেগুলি জনমুখী ও জনকেন্দ্ৰিক। ‘গত ৮ মাসে প্ৰেসিডেন্ট ট্ৰাম্পের সঙ্গে আমার পাঁচ বার সাক্ষাৎ হয়েছে। প্ৰতিরক্ষা ক্ষেত্ৰে আমরা আমাদের সম্পর্ককে ব্যাপকভাবে বিশ্বে একটা কৌশলগত অংশীদারের পর্যায়ে উন্নীত করার লক্ষ্যে এগিয়ে গেছি। নিজেদের গৃহভূমির নিরাপত্তায় আমরা পরস্পরের মধ্যে সহযোগিতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে এগোচ্ছি। উল্লেখ্য,সফরের প্ৰথম দিন মোতেরা স্টেডিয়ামে বিশাল সমাবেশে প্ৰতিরক্ষা চুক্তির কথা বলেছিলেন ট্ৰাম্প। প্ৰতিরক্ষা চুক্তি সই করে তিনি অবশ্য কথা রেখেছেন।

মোদি বলেন,সুসংগঠিত অপরাধ,সন্ত্ৰাস এবং মাদক পাচার ইত্যাদির বিরুদ্ধে লড়াই চালাতে আমরা আমাদের প্ৰয়াস বৃদ্ধি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এই সহযোগিতা উত্তরোত্তর বৃদ্ধি করা হবে’-বলেন মোদি।

প্ৰধানমন্ত্ৰী বলেন,ভারতে প্ৰেসিডেন্ট ট্ৰাম্পকে অভূতপূর্ব ও ঐতিহাসিক সংবর্ধনা জানানো হয়েছে যা দীর্ঘদিন স্মরণীয় হয়ে থাকবে। তিনি বলেন,দুই দেশের সম্পর্ক এখন শুধু সরকারের মধ্যেই সীমাবদ্ধ নয়। এই সম্পর্ক জনমুখী ও জনকেন্দ্ৰিক। ভারত-মার্কিন সম্পর্কের বিশেষ দিকটি হচ্ছে-এই সম্পর্ক গড়ে উঠবে উভয় দেশের মানুষে মানুষে।

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ ২৬ মার্চ অসমে রাজ্যসভার তিনটি আসনে নির্বাচন

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: Lawn Bowl Gold Medalist Sanzio Pandey shares candid moment with THE SENTINEL DIGITAL, Watch it here

Next Story