Top
Begin typing your search above and press return to search.

দুর্গা পুজো কমিটিগুলোকে কামরূপ (মেট্ৰো) জেলা প্ৰশাসনের নির্দেশিকা

দুর্গা পুজো কমিটিগুলোকে কামরূপ (মেট্ৰো) জেলা প্ৰশাসনের নির্দেশিকা

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  20 Sep 2019 10:50 AM GMT

গুয়াহাটিঃ আসন্ন দুর্গোৎসবের সময় ভক্তদের সুরক্ষা ও নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে গুয়াহাটির পুজো কমিটিগুলোকে নির্দেশ দিয়েছেন কামরূপের(মেট্ৰো)জেলাশাসক বিশ্বজিৎ পেগু। এব্যাপারে প্ৰশাসনের সঙ্গে সহযোগিতা করতে এবং প্ৰশাসনের বেঁধে দেওয়া নির্দেশিকা মেনে চলারও আহ্বান জানিয়েছেন পুজো কমিটিগুলোকে।

জেলা প্ৰশাসন এখানে জেলা গ্ৰন্থাগার প্ৰেক্ষাগৃহে বৃহস্পতিবার বিভিন্ন পুজো কমিটির প্ৰতিনিধি,পুলিশ,গুয়াহাটি পুর নিগম(জিএমসি)দূষণ নিয়ন্ত্ৰণ বোর্ড অসম,বিদ্যুৎ বিতরণ কোম্পানি লিমিটেড(এপিডিসিএল)এবং দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে এক বৈঠকে মিলিত হয়ে পুজোর সময় অস্থায়ী কাঠামো বা প্যান্ডেলগুলোর পাশাপাশি ইলেকট্ৰিক ফিটিংস এবং আগুন ইত্যাদির ক্ষেত্ৰে নিরাপত্তা ব্যবস্থা সুনিশ্চিত করার নির্দেশ দেন জেলাশাসক।

পুজোর সময় জরুরি অবস্থা দেখা দিলে লোকজনকে যাতে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়া যায় তার জন্য প্যান্ডেলগুলোর ধারে কাছে একটা স্থান পরিচ্ছন্ন ও উন্মুক্ত রাখতে বলা হয়েছে প্ৰশাসনের নির্দেশিকায়। জরুরি অবস্থা সামাল দিতে কমিটিগুলিকে চিকিৎসক সহ মেডিক্যাল টিম মজুত রাখতে নির্দেশিকায় বলা হয়েছে। পুজো প্যান্ডেলগুলোতে ব্যাপক সংখ্যক স্বেচ্ছাসেবক(পুরুষ ও মহিলা)রাখারও নির্দেশ দিয়েছে প্ৰশাসন। নির্দেশিকায় স্বচ্ছতা বজায় রাখার পাশাপাশি জেলাশাসক সমস্ত পুজো প্যান্ডেলে প্লাস্টিক ও থার্মোকল ব্যবহারের বিরুদ্ধে সতর্ক করে দিয়েছেন।

প্ৰশাসন পুজো কমিটিগুলোকে প্যান্ডেলে পর্যাপ্ত অগ্নি নির্বাপনের ব্যবস্থা রাখার সঙ্গে ভিড় নিয়ন্ত্ৰণে উপযুক্ত পদক্ষেপ নেওয়ারও নির্দেশ দিয়েছে। তাছাড়া পুরুষ ও মহিলাদের প্যান্ডেলে প্ৰবেশ ও বহির্গমনের পৃথক ব্যারিকেডের ব্যবস্থা করতে কমিটিগুলোকে বলা হয়েছে। মণ্ডপগুলোতে পর্যাপ্ত পানীয় জলের ব্যবস্থা করার পাশাপাশি স্বাস্থ্যকর ও পরিচ্ছন্ন পরিবেশ বজায় রাখতে এবং পুজো শেষ হওয়ার পর প্যান্ডেল এলাকা পুরো সাফসুতরো করতে নির্দেশে উল্লেখ করা হয়েছে। পুজো কমিটিগুলোর সমস্ত কর্মকর্তাদের নাম ঠিকানা সহ বিস্তারিত তালিকা নিকটবর্তী থানায় আগাম দাখিল করার জন্য নির্দেশ দিয়ে প্ৰশাসন বলেছে এতে অন্যথা করা চলবে না।

এই সভায় গুয়াহাটির পুলিশ কমিশনার দীপক কুমারও উপস্থিত ছিলেন। কুমার বলেন,লাউড স্পিকার ব্যবহার এবং শব্দ দূষণের ক্ষেত্ৰে থাকা নীতি অত্যন্ত সতর্কতার সঙ্গে অনুসরণ করে চলুন। ভক্তরা যাতে শান্তিপূর্ণভাবে পুজো দেখতে পারেন সেটা সুনিশ্চিত করুন। তাছাড়া পুজো প্যান্ডেলের চারপাশ বিপজ্জনক সামগ্ৰী থেকে মুক্ত রাখুন। মদ ও মাদক জাতীয় সামগ্ৰী থেকে প্যান্ডেল এলাকা সম্পূর্ণ মুক্ত রাখার কথাও বলেন তিনি। প্যান্ডেলগুলোর আশে পাশে যে সমস্ত পুলিশ কর্মীদের মোতায়েন করা হবে তাদের সু্যোগ সুবিধার প্ৰতিও নজর দিতে বলেছেন কুমার।

সব পুজো কমিটিগুলোকে অবিলম্বে তাদের পুলিশ থানার সঙ্গে যোগাযোগ করে ওসি ও এসিপিদের সঙ্গে ঘনঘন যোগাযোগ রাখার পরামর্শ দেন তিনি।

নির্দেশিকা অনু্যায়ী,কোনও পুজো কমিটি যদি ভিআইপি অথবা বিশেষ কোনও ব্যক্তিকে তাদের প্যান্ডেলে আসার আমন্ত্ৰণ জানায় তাহলে সে বিষয়ে পুলিশকে কমপক্ষেও সাতদিন আগে জানাতে হবে। পুজো কমিটির স্বেচ্ছাসেবকদের নিয়ে একটা হেল্প ডেক্স স্থাপন করতে এবং সব গুরুত্বপূর্ণ স্থানে পুলিশের সঙ্গে পরামর্শ করে প্যান্ডেলগুলোতে পর্যাপ্ত সিসিটিভি ক্যামেরা বসাতে নির্দেশিকায় উল্লেখ করা হয়েছে।

বিসর্জনের দিন দুর্গা প্ৰতিমা কোন রুট দিয়ে নেওয়া হবে সে ব্যাপারে কমিটিগুলোকে প্ৰশাসনের বেঁধে দেওয়া পথ ও নির্দেশিকা অনুসরণ করতে হবে-বলেন পেগু।

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ তিনসুকিয়ায় রেলওয়ে উড়াল সেতুর শিলান্যাস করলেন মুখ্যমন্ত্ৰী

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: Tea Garden workers at Sonari Borahi Tea Estate stage Protest | The Sentinel News | Assam News

Next Story