Top
Begin typing your search above and press return to search.

জলের নিচে জাদু দেখাতে গিয়ে গঙ্গায় নিখোঁজ কলকাতার জাদুকর

জলের নিচে জাদু দেখাতে গিয়ে গঙ্গায় নিখোঁজ কলকাতার জাদুকর

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  17 Jun 2019 1:58 PM GMT

কলকাতাঃ জলের নিচে জাদু দেখানোর এক মারণ চ্যালেঞ্জ নিয়ে কলকাতায় গঙ্গার বুকে নিখোঁজ হলেন এক জাদুকর। জাদুকরের নাম চঞ্চল লাহিড়ি। জাদুকর মদ্ৰাকে নামেই তিনি জনপ্ৰিয়। রবিবার হাওড়া সেতুর কাছে প্ৰাণের ঝুঁকি নিয়ে জলের নিচে জাদু দেখানোর চ্যালেঞ্জ নিয়েছিলেন তিনি। বিভিন্ন ধরনের জাদুর কৌশল দেখানোর জন্য বেশ নাম ডাকও ছিল তাঁর।

মিলেনিয়াম পার্ক থেকে নিজের শরীর লোহার চেইন ও দাড়ি দিয়ে বেঁধে গঙ্গার বুকে নামেন তিনি। জলের নিচে থাকার সময়ই তার শরীরের বাঁধন খুলে যাবে এবং তিনি অবলীলায় পাড়ে ভিড়বেন-এমনটাই কথা দিয়ে যান উপস্থিত দর্শকদের।

তবে ভরা গঙ্গায় নেমে চমক দেখানোর আগে লাহিড়ি বলেছিলেন,‘আমি যদি বাঁধন খুলতে পারি তাহলে সেটাই হবে ইন্দ্ৰজাল,যদি না পারি তাহলে সেটা হবে মর্মান্তিক বা বিষাদের’।

কিন্তু দুর্ভাগ্যজনক এটাই যে জাদুকরের ফ্যান ও অনুগামীরা তাঁর জলে নামার পর অধীর আগ্ৰহে নদীর তীরে অপেক্ষা করছিলেন। অনেকটা সময় কেটে যাওয়ার পর জাদুকর ফিরে না আসায় দর্শকরা হতাশ হয়ে পড়েন। হাওড়া সেতুর ২৮ নম্বর পিলারের কাছ থেকে জাদুকর লাহিড়ি নিখোঁজ হলেন। উপস্থিত দর্শকদের তিনি কথা দিয়েছিলেন তার পরিবারও তাঁর সঙ্গে জল থেকে উঠে আসবে। কিন্তু অনেকক্ষণ কেটে যাওয়ার পর পুলিশকে জানানো হয়। পুলিশ নদীর বুকে তল্লাশি অভিযানে নামে। অভি্যানে পুলিশের সঙ্গে ছিল দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগের কর্মীরা। কিন্তু জাদুকরের কোনও হদিশ তারা খুঁজে পাননি। এই জাদু দেখানোর আগে জাদুকর লাহিড়ি প্ৰয়োজনীয় অনুমতিও নিয়েছিলেন। কিন্তু তা সত্ত্বেও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ উপযুক্ত কোনও নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্ৰহণ করেননি।

ম্যাজিক প্ৰদর্শনের সময় একটি নৌকো থেকে শরীর বাধা অবস্থায় একটি ক্ৰেন তাঁকে তুলে নিয়ে নদীর বুকে নামিয়ে দেয়। জাদুকর জাদু প্ৰদর্শনের আগে বলেছিলেন জলের নিচে তাঁর বাঁধন খুলে যাবে এবং মুক্ত অবস্থায় পারে উঠে আসবেন তিনি।

জাদু প্ৰদর্শন শুরু হওয়ার পর দশ মিনিট কেটে যাওয়ার পর উপস্থিত দর্শক,ফ্যানদের মধ্যে আতঙ্ক দেখা দেয় এবং দর্শকরাই নর্থ পোর্ট পুলিশ স্টেশনে খবর দেন।

উল্লেখ্য,২১ বছর আগে এই একই স্থানে এই জাদু তিনি সাফল্যের সঙ্গে প্ৰদর্শন করেছিলেন।

একজন বরিষ্ঠ পুলিশ কর্তা জানান,আমরা তাঁর খোঁজে যথেষ্ট চেষ্টা করেছি। কিন্তু কোনও হদিশ পাইনি। রবিবার সন্ধে নেমে আসায় তল্লাশি বন্ধ রাখা হয়। তবে সোমবার ফের তল্লাশি চালানো হবে-জানান তিনি।

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ বঙাইগাঁওয়ে কুঞ্জিয়া নদীতে সলিল সমাধি দুই কলেজ ছাত্ৰের

Next Story