Begin typing your search above and press return to search.

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের আওতা থেকে গোটা অসমকে বাদ দিতে হবেঃ মহন্ত

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের আওতা থেকে গোটা অসমকে বাদ দিতে হবেঃ মহন্ত

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  17 Dec 2019 12:23 PM GMT

গুয়াহাটিঃ রাজ্যের প্ৰাক্তন মুখ্যমন্ত্ৰী প্ৰফুল্ল কুমার মহন্ত সোমবার এখানে বলছেন,নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনে বাংলাদেশ থেকে আসা হিন্দু প্ৰব্ৰজনকারীদের নাগরিকত্ব দিতে ভিত্তি বছর ধরা হয়েছে ২০১৪-র ৩১ ডিসেম্বর। তাই ওই কাট অফ ডেটের পরে ভারতীয় নাগরিকত্ব অর্জনের জন্য বাংলাদেশ থেকে হিন্দুদের প্ৰব্ৰজনের আশঙ্কা থাকার যুক্তি অমূলক নয়। সিএএ-র বয়ান অনু্যায়ী,২০১৪-র ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে যে সকল অমুসলিম ভারতে প্ৰব্ৰজন করেছেন তারা ভারতীয় নাগরিকত্ব পাবে। তবে ওই কাট অফ ডেটের আগে অথবা পরে ভারতে আসা ব্যক্তিরা কোনও নথিপত্ৰ সহ অথবা নথিপত্ৰ ছাড়া নাগরিকত্বের আবেদন জানাতে প্ৰয়োজন হবে কি না সে ব্যাপারে আইনটি সম্পূর্ণ নীরব রয়েছে।

এই হেন পরিস্থিতির প্ৰেক্ষিতে পড়শি দেশ থেকে ২০১৪-র ৩১ ডিসেম্বরের পরে ভারতে আসা অনেক হিন্দু প্ৰব্ৰজনকারী নাগরিকত্বের জন্য আবেদন জানাতে পারে। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের(সিএএ)গোপন বিপজ্জনক দিক এটাই। সে দিক থেকে অসমের মানুষের আইনটির বিরুদ্ধে আন্দোলন যথেষ্ট ন্যায় সঙ্গত-বলেন ঐতিহাসিক অসম আন্দোলনের অন্যতম নেতা মহন্ত।

সোমবার এখানে এক সাংবাদিক সম্মেলনে বক্তব্য রেখে মহন্ত বলেন,প্ৰধানমন্ত্ৰী নরেন্দ্ৰ মোদি ২০১৪-র ১৬ মে-র পরে একসময় বলেছিলেন,সমস্ত বাংলাদেশি প্ৰব্ৰজনকারীদের তল্পিতল্পা সহ চলে যেতে হবে। কিন্তু এখন সেই প্ৰধানমন্ত্ৰী হিন্দু বাংলাদেশিদের জন্য লাল গালিচা বিছিয়ে দিচ্ছেন। সিএএ-র বিরুদ্ধে যে গণ আন্দোলন ও বিক্ষোভ চলছে সে ব্যাপারে প্ৰধানমন্ত্ৰী সচেতন কিনা তা নিয়েও প্ৰশ্ন তোলেন মহন্ত।

সিএএ-র বিরুদ্ধে বিভিন্ন সংগঠন প্ৰতিবাদ জানাচ্ছে। ‘আমি আশা করছি কেন্দ্ৰের শুভবুদ্ধির উদয় হবে এবং উত্তর পূর্বের অন্যান্য রাজ্যের মতো বিতর্কিত আইনটির নাগপাশ থেকে অসমকেও ছাড় দেবে তারা’-বলেন মহন্ত।

অগপর প্ৰাক্তন সভাপতি মহন্ত আরও বলেন,তাঁর দল অগপ নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল যা বর্তমানে সিএএ বিরোধিতা করে এসেছে। আমি সিএএ-র বিরুদ্ধে দলীয় মঞ্চে কিছু বলছি না বলে অগপ সভাপতি অতুল বরা যে অভিযোগ এনেছেন সে ব্যাপারে মহন্ত বলেন,বিভিন্ন দলীয় সভায় আমাকে আমন্ত্ৰণই জানানো হয়নি,বিশেষ করে যেখানে সিএএ নিয়ে আলোচনা হয়েছে। ব্ৰহ্মপুত্ৰ উপত্যকাকে সিএএ-র আওতায় আনার পক্ষে অগপ নয় বলে ইস্যুটি সম্পর্কে মহন্ত বলেন,গোটা অসমকে এই আইনের আওতা থেকে বাদ দেওয়া উচিত।

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ নাগরিকত্ব আইনে কোনও ভারতীয়র ক্ষতি হবে না,বললেন প্ৰধানমন্ত্ৰী

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: RD Junior College Students Stage Massive Protest against CAB

Next Story