ন্যাশনাল

হায়দরাবাদ এনকাউন্টারের নিন্দা মমতার,প্ৰশংসা তৃণমূলের তিন মহিলা সাংসদের

মমতা
File Photo

 

কলকাতাঃ পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্ৰী মমতা ব্যানার্জি হায়দরাবাদ গণধর্ষণ ও হত্যাকাণ্ডের ৪ অভিযুক্তের এনকাউন্টারে মৃত্যুর ঘটনার জোর নিন্দা করেছেন। তবে মমতা বলেছেন,মহিলাদের ওপর কোনও ধরনের নির্যাতন তিনি সহ্য করতে  নারাজ। তবে কেউ আইন নিজের হাতে তুলে নিক,সেটাও তিনি সমর্থন করেন না।

মেয়ো রোডে শুক্ৰবার মুখ্যমন্ত্ৰী বলেন,‘এটাকে আইন বলা যায় না,আমি কখনোই আইন নিজের হাতে তুলে নিতে পারি না। তাঁর মতে আইন হচ্ছে,পুলিশ অভিযুক্তকে আদালতে পেশ করবে,বিচারের কাজ করবেন বিচারক’।

পুলিশের উদ্দেশে মমতা কড়া নির্দেশ দিয়ে বলেন,এজাতীয় ঘটনা ঘটলে পুলিশের কাজ হবে অভি্যুক্তকে গ্ৰেপ্তার করে চার্জশিট দেওয়া এবং সেটা দ্ৰুত অর্থাৎ ৩ থেকে ১০ দিনের মধ্যে সারতে হবে।

এদিকে,তৃণমূল সুপ্ৰিমোর বিপক্ষে গিয়ে দলের তিন মহিলা সাংসদ চার অভি্যুক্তের এনকাউন্টারকে সমর্থন জানিয়েছেন। শুক্ৰবার বীরভূমের দলীয় সাংসদ শতাব্দী রায় সংসদ চত্বরে বলেছেন,এটা ঠিকই হয়েছে। না হলে এরা বিচারাধীন থাকতো আর সাত বছর ধরে চিলি চিকেন,ফ্ৰায়েড রাইস খেতো।

বসিরহাটের সাংসদ অভিনেত্ৰী নুসরত জাহান টুইটারে লিখেছেন,অবশেষে বিচার হলো। অপরাধীর বাঁচার অধিকার নেই। বাংলার আরও এক সাংসদ অভিনেত্ৰী মিমি চক্ৰবর্তী লিখেছেন,‘তোমার আত্মা অবশেষে শান্তি পাবে। হায়দরাবাদ এনকাউন্টার নিয়ে ওখানকার লোকেদের সেলিব্ৰেশনের একটি ছবিও শেয়ার করেছেন মিমি।

 

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ কোনও ধর্ষককেই ক্ষমা নয়,বললেন রাষ্ট্ৰপতি রামনাথ কোবিন্দ

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: Sonitpur Administration launched an eviction drive against few suspicious people