Top
Begin typing your search above and press return to search.

বরাক উপত্যকায় মিনি সচিবালয় নির্মাণ হতে চলেছে

বরাক উপত্যকায় মিনি সচিবালয় নির্মাণ হতে চলেছে

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  21 Aug 2019 1:25 PM GMT

শিলচরঃ বরাক উপত্যকার উন্নয়নে মুখ্যমন্ত্ৰী সর্বানন্দ সোনোয়াল বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছেন। দিশপুরে বিজেপি সরকারের তিন বছরের শাসন কালের মধ্যেই বরাকের মানুষ ২০১৬ তে বিজেপি-র দেওয়া নির্বাচনী প্ৰতিশ্ৰুতি রূপায়ণের দৃশ্য এক এক করে দেখতে পাচ্ছেন। মঙ্গলবার শিলচরের শহরতলি এলাকা আইটিআই-র কাছে শ্ৰীকোণায় মিনি সেক্ৰেটারিয়েটের(সচিবালয়)জন্য ভূমি পূজনের কাজ সম্পন্ন করা হলো। বরাকের উন্নয়নে যে সব প্ৰকল্প গ্ৰহণ করা হয়েছে এটি তার মধ্যে একটি। এদিন শিলচরের উপকণ্ঠ শ্ৰীকোণায় সচিবালয়ের জন্য জমি উন্নয়ন ও সীমানা প্ৰাচীর নির্মাণের মাধ্যমে প্ৰকল্পটিকে বাস্তব রূপ দেওয়ার প্ৰাথমিক কাজ শুরু হয়। সচিবালয় নির্মাণের জন্য ভূমি পূজন উপলক্ষে আয়োজিত সভায় উপস্থিত ছিলেন মৎস্য ও আবগারি মন্ত্ৰী পরিমল শুক্লবৈদ্য,সাংসদ ডা. রাজদীপ রায়,বিধায়ক কৃপানাথ মাল্লা,কাছাড়,করিমগঞ্জ ও হাইলাকান্দির জেলাশাসক,সরকারি কর্মকর্তা ও সাধারণ নাগরিকরা। ভূমি পূজন অনুষ্ঠানে মন্ত্ৰী শুক্লবৈদ্য ও সাংসদ রাজদীপ রায় সবার অগ্ৰভাগে ছিলেন।

পরে এ উপলক্ষে আয়োজিত সভায় মন্ত্ৰী শুক্লবৈদ্য বলেন,মিনি সচিবালয়ের জমি উন্নয়ন ও রিটেনিং তথা বাউন্ডারি ওয়ালের কাজ শুরু করতেই এই ভূমি পূজার আয়োজন করা হয় বৈদিক মন্ত্ৰ উচ্চারণের মাধ্যমে। শুক্লবৈদ্য বলেন,মিনি সচিবালয় নির্মাণ সার্থক রূপ নেওয়ার পথে এগোচ্ছে। তিনি বলেন,সচিবালয় হলে ৭০ শতাংশ কাজ এখানেই সম্পাদন করা যাবে। এর জন্য দিশপুর পর্যন্ত দৌড়তে হবে না। বরাক উপত্যকার মানুষের জন্য এটা সর্বানন্দ সোনোয়ালের স্বপ্নের প্ৰকল্প। ড. রাজদীপ রায় এবং অন্যান্য সাংসদরা বলেন,মিনি সচিবালয়ে থাকবে কেন্দ্ৰীভূত শাসন ব্যবস্থা এবং এটা জনগণের সঙ্গে অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ হবে। প্ৰধানমন্ত্ৰী নরেন্দ্ৰ মোদি ও মুখ্যমন্ত্ৰী সর্বানন্দ সোনোয়াল বরাক উপত্যকার উন্নয়নে প্ৰতিশ্ৰুতিবদ্ধ-উল্লেখ করেন রাজদীপ। ১৬ বিঘারও বেশি জমিতে নির্মাণ হবে এই মিনি সচিবালয়। বর্তমানে প্ৰাচীরের কাজের জন্য ৪.৬২ লক্ষ টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। ৯ মাসের মধ্যে প্ৰকল্পটির প্ৰাচীরের কাজ শেষ হবে। পরবর্তী পর্যায়ে সেক্ৰেটারিয়েট ব্লক,অ্যাসেম্বলি,অতিথিশালা,স্টাফ কোয়ার্টার এবং আনুষঙ্গিক সমস্ত কাজ বাবদ ব্যয় হবে ১৩৫.৭ কোটি টাকা। আগামি ৬ বছরের মধ্যে শিলচরে মিনি সচিবালয় মাথা তুলে দাঁড়াবে-এমনটাই আশা করা হচ্ছে। রাজদীপ আরও বলেন,যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নত করতে এনএইচএআই-র অধীনে ২৭২ কিলোমিটার দীর্ঘ সড়ক নির্মাণ করা হবে উপত্যকায়।

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ সন্ত্ৰাস বিরোধী দিবসে শপথ গ্ৰহণ রাজ্য সচিবালয় কর্মীদের

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: Man-Elephant Conflict in Majuli, Many residences destroyed

Next Story