Top
undefined
Begin typing your search above and press return to search.

বিশ্বের সবচেয়ে দামি কাঁকড়া,দাম শুনলে চমকে উঠবেন আপনিও

বিশ্বের সবচেয়ে দামি কাঁকড়া,দাম শুনলে চমকে উঠবেন আপনিও

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  13 Nov 2019 1:07 PM GMT

বিশ্বের সবচেয়ে দামি কাঁকড়া,যার দাম শুনলে চমকে উঠবেন আপনি। আমরা পৃথিবীর বুকে বিভিন্ন ধরনের পশু,পাখি দেখেছি। কিন্তু ওই সব জীবজন্তু কোথা থেকে আসে এবং সেগুলির দামই বা কী হতে পারে আমরা সে বিষয়ে মোটেই জ্ঞাত নই। তার উপর অনেক সময় কিছু প্ৰাচীন দুর্লভ প্ৰজাতির জীবজন্তু নিলামের সময় সেগুলি বহু কোটি টাকায় বিক্ৰি হতেও দেখা যায়। পৃথিবীতে এমনও কিছু মানুষ রয়েছেন যারা প্ৰাচীন জিনিস কিনতে ভালবাসেন এবং এরজন্য বেশি দাম দিতে কার্পণ্য করেন না। প্ৰাচীন সামগ্ৰীর নিলামে ওঠার বিষয়টি নিছকই একটা সাধারণ কথা। কিন্তু আজ আমরা এমন একটা কাঁকড়ার কথা বলতে যাচ্ছি যার দাম শুনলে বিস্মিত হবেন আপনিও। জানা গিয়েছে এই বিশেষ প্ৰজাতির কাঁকড়াটি বিক্ৰি হয়েছে ৩২ লক্ষ ৬৬ হাজার টাকায়। তাছাড়া এই কাঁকড়াটিকে বিশ্বের সবচেয়ে দামি কাঁকড়া বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

বিশ্বের সবচেয়ে দামি কাঁকড়াটি বিক্ৰি হয়েছে জাপানের পশ্চিম প্ৰান্তের টট্টোরিতে। জানা গেছে,বিশ্বের সবচেয়ে দামি এই কাঁকড়া পাওয়া যায় বরফের মধ্যে। এই বিশেষ প্ৰজাতির কাঁকড়ার নাম হলো ক্ৰস্টেশিয়ন। জাপানে শীতের মরশুম শুরু হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে সি ফুডের নিলামি চলে। এই নিলামিতে টুনা নামে এক ধরনের মাছের বিক্ৰি বেশি হয়। আরও জানা গিয়েছে,বিশ্বের সবচেয়ে দামি এই কাঁকড়ার ওজন ১.২ কিলোগ্ৰাম এবং এর দৈর্ঘ্য ১৪.৬ সেন্টিমিটার। গত বছর জাপানে কাঁকড়ার দর ছিল ১৩ লাখ টাকা,যা গিনেজ বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে ঠাঁই পেয়েছিল।

কিন্তু এবছর কাঁকড়ার দাম পূর্বের সব রেকর্ড ভেঙে দিয়ে এক নতুন নজির সৃষ্টি করেছে। সংবাদ মাধ্যম সূত্ৰে জানা গিয়েছে বিশ্বের সবচেয়ে দামি কাঁকড়াটি একজন স্থানীয় দোকানি ক্ৰয় করেছেন। কাঁকড়াটি জাপানের গ্লিটজি গিঞ্জায় থাকা একটি রেস্তোরাঁয় দেওয়া হবে বলে খবর পাওয়া গিয়েছে।

তবে এর আগে একজন ব্যবসায়ী ২২ কোটি টাকায় টুনা মাছ কিনেছেন বলে খবর প্ৰকাশিত হয়েছে।

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ বাংলাদেশে দুটো ট্ৰেনের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১৫,আহত ৫০-এর বেশি

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: Body of Unidentified Man found floating in Kampur’s Nikhari River

Next Story