Top
Begin typing your search above and press return to search.

ডিব্ৰুগড়ে করোনায় আক্ৰান্তের রিপোর্ট নেই,বললেন সরকারি আধিকারিকরা

ডিব্ৰুগড়ে করোনায় আক্ৰান্তের রিপোর্ট নেই,বললেন সরকারি আধিকারিকরা

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  18 March 2020 1:23 PM GMT

গুয়াহাটিঃ ডিব্ৰুগড়ে কিছু লোকের শারীরিক পরীক্ষায় করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি সম্পর্কে খবর চাউর হওয়ায় সরকারি কর্মকর্তারা জনগণকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছিলেন।

করোনার লক্ষণযুক্ত সন্দেহভাজন লোকেদের ডিব্ৰুগড়ের এএমসিএইচ-এ ভর্তি করে তাদের শারীরিক পরীক্ষার পর ফল নিগেটিভ আসে। প্ৰশাসনের তরফ থেকে আরও বলা হয়েছে,এই অঞ্চলে চারজন কোভিড-১৯-এ আক্ৰান্ত হয়েছেন বলে যে রিপোর্ট পাওয়া গিয়েছিল সেটাও মিথ্যে।

কোভিড-১৯-এর প্ৰাদুর্ভাব নিয়ে সারা দেশে বর্তমানে যে পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে তার পরিপ্ৰেক্ষিতে ডিব্ৰুগড়ের জেলাশাসক পল্লব গোপাল ঝা সোমবার শহরের লোকজনের উদ্দেশে আবেদন জানিয়েছিলেন যে তাঁরা যেন বিশেষ প্ৰয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে ঘোরাঘুরি করতে না যান।

ডিব্ৰুগড় জেলা প্ৰশাসন সোমবার করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে সতর্কতা ও প্ৰতিরোধমূলক ব্যবস্থা নিয়ে স্বাস্থ্য,জনস্বাস্থ্য,কারিগরি,খাদ্য ও অসামরিক সরবরাহ এবং গ্ৰাহক বিষয়ক বিভাগ,রেলওয়ে ও এএমসিএইচ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে এক বৈঠকে মিলিত হয়। ওই বৈঠকে পৌরোহিত্য করেন ডিব্ৰুগড়ের জেলাশাসক পল্লব গোপাল ঝা।

ডিব্ৰুগড় জেলায় কোভিড-১৯ বা করোনা ভাইরাসের সংক্ৰমণ ঠেকাতে উল্লিখিত বিভাগগুলি কী ধরনের প্ৰতিরোধমূলক ব্যবস্থা গ্ৰহণ করেছে সভায় তা নিয়ে আলোচনা করা হয়।

জেলাশাসকের কার্যালয়ের কনফারেন্স হলে আয়োজন করা হয়েছিল এই বৈঠকের। সরকারি স্বাস্থ্য প্ৰতিষ্ঠানে চিকিৎসার সু্যোগ সুবিধা সম্পর্কে খতিয়ে দেখা হয় বৈঠকে। এএমসিএইচ সহ মডেল হাসপাতালগুলিতে স্বাস্থ্য বিভাগ কোয়ারেন্টাইনের সুবিধা সহ যে সমস্ত আইসোলেশন ওয়ার্ড স্থাপন করেছে সেগুলির অবস্থাও খতিয়ে দেখা হয় এই সভায়। বৈঠকে জেলাশাসক ঝা আইসোলেশন ওয়ার্ডের জন্য নির্ধারিত কর্মকর্তা ও স্টাফের সঠিক প্ৰশিক্ষণের ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন। তিনি আশা এবং এএনএম কর্মীদের তৃণমূল পর্যায়ে কাজে লাগাতে স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেন। বর্তমানে আশা ও এএনএম কর্মীরা কোভিড-১৯ সম্পর্কে জনগণকে সচেতন করার কাজে লিপ্ত রয়েছে। রেলওয়ে কর্মকর্তাদের তিনি অনুরোধ করেন,বাইরে থেকে ট্ৰেনে করে সারা জেলায় আসছে তাদের সফরের বিস্তারিত ইতিহাস রাখতে। তাহলে ওই সব লোকেদের সম্পর্কে রেলের কাছ থেকে তথ্য সংগ্ৰহ করা প্ৰশাসনের পক্ষে সহজ হবে। রেল স্টেশনগুলিতেও যাত্ৰীদের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টিতে গুরুত্ব দেওয়ার জন্য রেল কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ করেছেন জেলাশাসক।

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ অরুণাচলী তনয়ার মার্কিন সেনায় যোগদানে সাড়া ফেলেছে সোশিয়েল মিডিয়ায়

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: KMSS leader Akhil Gogoi granted bail as NIA fails to submit charge-sheet

Next Story