ইন্টারন্যাশনাল

পাকিস্তান অসামরিক বিমান উড়ানের জন্য তাদের আকাশপথ ফের খুলে দিলো

পাকিস্তান
Representative image

দীর্ঘদিন বন্ধ রাখার পর ভারতের অসামরিক বিমান চলাচলের জন্য পাকিস্তান তাদের আকাশ পথ ফের খুলে দিয়েছে। নিরাপত্তা সংক্ৰান্ত ইস্যু এবং ভারতীয় বায়ু সেনা ওই দেশের সীমান্তে এয়ার স্ট্ৰাইক চালানোর পরিপ্ৰেক্ষিতে পাকিস্তান তাদের আকাশ পথ বন্ধ করে দিয়েছিল। তবে এখন ভারতের অসামরিক বিমান উড়ানের জন্য পাকিস্তান ফের তাদের আকাশ পথ খুলে দিয়েছে। পড়শি দেশ ভারতের সঙ্গে একটা বিরোধ চলার পর অবশেষে পাকিস্তান তাদের আকাশ পথ খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়।

পাকিস্তান অসামরিক বিমান পরিবহণ কর্তৃপক্ষের ওয়েবসাইটের তরফে এয়ারম্যান-এর(এনওটিএএম)উদ্দেশে ইস্যু করা এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে,প্ৰকাশিত এটিএস(এয়ার ট্ৰাফিক সার্ভিস)রুটে সব ধরনের অসামরিক বিমান চলাচলের সুবিধার্থে পাকিস্তান তাদের আকাশ পথ খুলে দিয়েছে।

আকাশ পথ খুলে দেওয়ায় সব আন্তর্জাতিক এয়ারলাইন্স ওই দেশের আকাশ সীমায় ঢোকার অনুমতি পেলো। বিমান উড়ানের ক্ষেত্ৰে পাকিস্তান হচ্ছে একটা গুরুত্বপূর্ণ অ্যাভিয়েশন করিডর। পাকিস্তানের ওই নিষেধাজ্ঞা চাপানোর জন্য প্ৰতিদিন শতাধিক বাণিজ্যিক ও পণ্যবাহী বিমান উড়ানে ব্যাঘাত সৃষ্টি হয়েছিল। পাকিস্তানের আকাশ পথ ধরে ভারতীয় বিমানগুলো চলাচল করলে যাত্ৰীদের উড়ানের সময় যেমন বাঁচবে তেমনি এয়ারলাইন্সগুলোর জ্বালানি খরচেরও সাশ্ৰয় হবে। পাক আকাশ পথ খুলে যাওয়ায় আন্তর্জাতিক এয়ারলইন্সগুলোও উপকৃত হবে যথেষ্ট।

এদিকে,ভারতের অসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্ৰক এনওটিএএম-এর ওপর থেকে পাকিস্তানের নিষেধাজ্ঞা প্ৰত্যাহার সম্পর্কে বলেছে,বিশ্বের কোনও দেশেই আকাশ পথ নিয়ে কোনওরকম নিষেধাজ্ঞা বহাল নেই।

মন্ত্ৰক আরও বলেছে,‘বিমানগুলো এতদিন বন্ধ থাকা আকাশ পথ ব্যবহার করতে শুরু করেছে এবং এটা এয়ারলাইন্সগুলোর কাছে যথেষ্ট স্বস্তিদায়ক হবে’।

এখানে উল্লেখ করা যেতে পারে যে,পাক মদতপুষ্ট জঙ্গি আস্তানায় ভারতীয় বায়ু সেনার বিমান হানার পর পাকিস্তান পাক আকাশ পথে ভারতীয় অসামরিক বিমান চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা চাপিয়েছিল। বালাকোটে জঙ্গি ঘাঁটিতে ভারতীয় বায়ু সেনার আক্ৰমণের পরই দুই দেশের মধ্যে সামরিক ক্ষেত্ৰে বিরোধের সৃস্টি হয়। ওই ঘটনার পরপরই ভারতীয় অসামরিক বিমান উড়ানে পাকিস্তান তাদের আকাশ পথ বন্ধ করে দেয়।

উল্লেখ করা যেতে পারে পাকিস্তান আকাশ পথ খুলে দেওয়ায় বিশেষ করে এয়ার ইন্ডিয়া খুবই উপকৃত হবে। আন্তর্জাতিক বিমান উড়ানে এয়ার ইন্ডিয়া এই পথই ব্যবহার করে আসছিল। এই আকাশ পথ এতদিন বন্ধ থাকায় ভারতের সব এয়ারলাইন্স বিশেষ করে এয়ার ইন্ডিয়া,স্পাইস জেট,ইন্ডিগো,গো এয়ারকে প্ৰায় ৫৫০ কোটি আইএনআর লোকসান গুনতে হয়েছে।

 

 

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ পাকিস্তান আর কারগিলের মতো পরিস্থিতি সৃষ্টির সাহস দেখাবে নাঃ বিপিন রাওয়াত