ন্যাশনাল

২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনে ভুয়া খবর ও ভুয়া তথ্য প্ৰচারের বিরুদ্ধে নেওয়া প্ৰস্তুতি?

ভুয়া খবর
Source: Google

বর্তমান বিশ্বে ফেসবুক বৃহৎ সোশ্যাল মিডিয়া মঞ্চ যেখানে অনেক ভুয়া খবরও পাওয়া যায়। জনগণকে ফেসবুকে নিজের মনোভাব ব্যক্ত করার সু্যোগ দিয়েছে ফেসবুক। গণতন্ত্ৰে নিজেকে প্ৰকাশ করার একটা মাধ্যম হিসেবে প্ৰকাশ করার সু্যোগ করে দিয়েছে। ফেসবুকে ভুয়া তথ্যও প্ৰকাশ পেতে দেখা যায়। ফেসবুক এবং অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া ভুয়া খবর এবং ভুয়া তথ্যের প্ৰচার বন্ধ করতে বহু পদক্ষেপ গ্ৰহণ করেছে।

ভারতের লোকসভা নির্বাচনঃ

ভারতে ২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচন সমাপ্ত হয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে অতি স্পর্শকাতরভাবে ভুয়া খবর সম্প্ৰচার করাও এক সমস্যা। তবে এব্যাপারে আমাদের তিনটি বিষয়ের ওপর গুরুত্ব দিতে হবে। সোশ্যাল মিডিয়ার ভুয়া খবর ও ভুয়া তথ্যর জন্য সৃষ্টি হওয়া যেকোনো সমস্যার ক্ষেত্ৰে গুরুত্ব দিতে হবে।

শুরু থেকে হোয়াটসঅ্যাপের অপব্যবহার

শিক্ষা ও জনশক্তি ফেসবুকে সুরক্ষিত রাখতে সাহায্য করা। সরকার এবং সাধারণ সমাজের সঙ্গে একযোগে কাজ করা।

হোয়াটসঅ্যাপের কৌশলি বৈশিষ্ট্যঃ

হোয়াটসঅ্যাপও বিভিন্ন ধরনের লোবেল পাঠানোর ক্ষেত্ৰে বেশকিছু পদক্ষেপ করেছে। হোয়াটসঅ্যাপ এখন অন্যকে পাঠানো ম্যাসেজগুলো সূক্ষ্মভাবে বিশ্লেষণ করে। সেইসঙ্গে ফোটোসমূহের বিশ্বাসযোগ্য উৎস অথবা ভুয়া খবর কিনা সেই দিকেও নজর রাখে। হোয়াটসঅ্যাপ এখন ‘share joy,not remours’ শীর্ষক প্ৰচার চালাচ্ছে। এটা বর্তমানে খুবই জনপ্ৰিয়। হোয়াটসঅ্যাপ বর্তমান গ্ৰুপের প্ৰাইভেসি সেটিংস এবং এডমিন কন্ট্ৰোলর ক্ষেত্ৰে ভুয়া খবর গ্ৰুপে শেয়ার করার ক্ষেত্ৰে কিছু নীতি ঠিক করে দিয়েছে।

হোয়াটসঅ্যাপের সীমাবদ্ধতাঃ

হোয়াটসঅ্যাপ গ্ৰুপে এখন থেকে একটা সময়ে কেবল ৫টা গ্ৰুপে একটি ম্যাসেজ শেয়ার করা যাবে। হোয়াটসঅ্যাপ সেইসব কোম্পানির একটি যেখানে ব্যবহারকারীরা জেনেবুঝে শেয়ার করেন। এর মাধ্যমে বিভিন্ন গ্ৰুপে শেয়ার হওয়া ভুয়া খবরের প্ৰচার বন্ধ করা যাবে। হোয়াটসঅ্যাপ লোকাল টিমসমূহ উন্নত করেছে। এক্ষেত্ৰে তারা সরকার,সমাজের মধ্যে ভুয়া খবর প্ৰচার বন্ধ করতে পারে। ভুয়া খবরের মাধ্যমে যেকোনও অঞ্চলে হিংসা ছড়াতে পারে।

ভুয়া খবর প্ৰচার বন্ধ করার ক্ষেত্ৰে ফেসবুকও পদক্ষেপ নিয়েছে। রাজনৈতিক মতামত প্ৰকাশ করা এবং এর মাধ্যমে ভোটারদের মনে প্ৰভাব ফেলতে পারে এমন যেকোনও অ্যাকাউণ্ট ফেসবুক থেকে ডিলিড করা হয়েছে। এখন থেকে তারা এক্ষেত্ৰে আরও স্বচ্ছতা অবলম্বন করবে যার মাধ্যমে জনগণ বুঝতে পারবেন ফেসবুক কীভাবে কাজ করছে।

 

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ ২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনে সুরক্ষা প্ৰদানে ভুয়া খবর ও ভুল তথ্যের প্ৰচার রুখতে ফেসবুক কি পদক্ষেপ নিয়েছিল?