রাজ্যের খবর

করোনা ভাইরাস প্ৰতিরোধঃ সব হাসপাতালে পৃথক কক্ষ রাখার নির্দেশ সরকারের

করোনা

 

গুয়াহাটিঃ এখন থেকে রাজ্যের সব সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে করোনা ভাইরাসে আক্ৰান্তদের চিকিৎসার জন্য পৃথক কক্ষ রাখতে হবে। মারণ জীবাণু করোনার সম্ভাব্য প্ৰাদুর্ভাব নিয়ন্ত্ৰণ ও প্ৰতিরোধের উদ্দেশে বৃহস্পতিবার এই নির্দেশ জারি করে রাজ্য সরকার। স্বাস্থ্য বিভাগের প্ৰধান সচিব সমীর কুমার সিনহার জারি করা এই নির্দেশে আরও বলা হয়েছে যে করোনা সংক্ৰমণ ঠেকানোর উদ্দেশ্যে গোটা রাজ্যে একজন করে ক্ষমতাসম্পন্ন আধিকারিক নিয়োগ করা হবে। ওই আধিকারিকরা নিজেদের এলাকায় করোনা ভাইরাস প্ৰতিরোধে কাজ করবেন।

অন্যদিকে,নির্দেশে বলা হয়েছে কোনও হাসপাতাল করোনা আক্ৰান্ত রোগীর পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালাতে অস্বীকার করতে পারবে না। তাছাড়া হাসপাতালগুলোকে এধরনের রোগী সম্পর্কে স্বাস্থ্য বিভাগকে অবগত করাতে হবে। অন্যদিকে দেশ,বিদেশ ঘুরে আসা লোকেদের নিজেকে পৃথকভাবে রাখার জন্য নির্দেশ দিয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগ। তাছাড়া ওই নির্দেশিকায় আরও বলা হয়েছে,স্বাস্থ্য বিভাগ এবং সংশ্লিষ্ট জেলাশাসকদের অনুমতি ছাড়া করোনা ভাইরাস সম্পর্কিত কোনও তথ্য কোনও প্ৰচার মাধ্যমে কেউ প্ৰচার করতে পারবেন না। এই নির্দেশিকা লঙ্ঘনকারীদের বিরুদ্ধে জরিমানা চাপানো হবে বলে নির্দেশিকায় বলা হয়েছে।

এরআগে,রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্ৰী হিমন্তবিশ্ব শর্মা বলেছেন যে করোনা ভাইরাস প্ৰতিরোধে রাজ্য সরকার সম্পূর্ণভাবে প্ৰস্তুত হয়েছে। করোনা মহামারির আকার ধারণ করলেও অসমবাসীর অযথা আতঙ্কিত হবার কারণ নেই। তিনি বলেন,গুয়াহাটি মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে(জিএমসিএইচ)করোনায় আক্ৰান্ত সন্দেহে ২৯ জন লোকের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়েছে। এদের মধ্যে ২৮ জনের শরীরে এই রোগ জীবাণুর লক্ষণ ধরা পড়েনি। মারণ ব্যাধির সম্ভাব্য প্ৰাদুর্ভাব নিয়ন্ত্ৰণে রাজ্য সরকার আগামি ২৯ মার্চ পর্যন্ত রাজ্যের সব শিক্ষা প্ৰতিষ্ঠান বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে। তাছাড়া জিমন্যাশিয়াম,শপিংমল ইত্যাদিও বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে। এদিকে গোটা দেশে করোনা আক্ৰান্তের সংখ্যা ক্ৰমেই বাড়ছে। দেশে বুধবার পর্যন্ত এই রোগে ১২৩ জন আক্ৰান্ত হয়েছেন।

 

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ করোনা ভাইরাসঃ কেরলের হোটেলে কোয়ারেন্টাইন থেকে ফেরার অসমের এক ব্যক্তি

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: GMC carries out eviction drive against illegal street shops at Panbazar, Fancy Bazar