Top
undefined
Begin typing your search above and press return to search.

এনআরসি ছুটদের আপিল প্ৰক্ৰিয়া চালিয়ে নিতে আবেদন গ্ৰহণের জন্য ‘এসওপি’ প্ৰস্তুত করল দিশপুর

এনআরসি ছুটদের আপিল প্ৰক্ৰিয়া চালিয়ে নিতে আবেদন গ্ৰহণের জন্য ‘এসওপি’ প্ৰস্তুত করল দিশপুর

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  16 Sep 2019 9:50 AM GMT

গুয়াহাটিঃ পূর্ণাঙ্গ রাষ্ট্ৰীয় নাগরিক পঞ্জি(এনআরসি)প্ৰকাশের পরবর্তী পর্যায়ের পরিচালনা প্ৰক্ৰিয়া হিসেবে রাজ্য সরকারের গৃহ ও রাজনৈতিক বিভাগ নাম ছুটদের আপিল প্ৰাপ্তি ও নিষ্পত্তির জন্য একটি এসওপি(স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্ৰোসিডিউর)প্ৰস্তুত করেছে মনোনীত এফটির দ্বারা। এনআরসি প্ৰকাশের পরবর্তী পর্যায়ে নাম ছুটদের আবেদন গ্ৰহণে মনোনীত এফটিগুলোর সংশোধিত নির্দেশ ২০১৯ অনু্যায়ী এই এসওপি গঠন করা হয়।

রাজ্য সরকার অতিরিক্ত ২০০টি বিদেশি ট্ৰাইবুনালের জন্য গৌহাটি হাইকোর্টের বাছাই করা সদস্য বা বিচারপতি ইতিমধ্যেই নিয়োগ করেছে। একই সঙ্গে বর্তমানের ১০০টি এফটিতে খালি পড়ে থাকা ২১টি পদও পূরণ করা হয়েছে।

চূড়ান্ত রাষ্ট্ৰীয় নাগরিক পঞ্জিতে(এনআরসি)নাম অন্তর্ভুক্তির জন্য মোট ৩,৩০,২৭,৬৬১ জন আবেদন জানিয়েছিলেন। রাজ্যে পূর্ণাঙ্গ এনআরসি প্ৰকাশিত হয় চলতি বছরের ৩১ আগস্ট। এর মধ্যে ৩,১১,২১,০০৪ জন ব্যক্তির নাম এনআরসিতে অন্তর্ভুক্তির জন্য যোগ্য বিবেচিত হয়েছে। ১৯,০৬,৬৫৭ জন আবেদনকারীর নাম চূড়ান্ত এনআরসিতে অন্তর্ভুক্তির অযোগ্য ঘোষিত হয়েছে।

স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্ৰোসিডিউর(এসওপি)অনু্যায়ী,আবেদনকারীরা,যার নাম চূডান্ত এনআরসি নথিতে অন্তর্ভুক্ত বা মুছে ফেলা হয়নি-এনআরসি কর্তৃপক্ষের কাছে তার দায়ের করা দাবি বা আপত্তিগুলি সত্ত্বেও-ব্যক্তিগত বা তার মাধ্যমে আপিল দায়ের করতে পারেন,সংশ্লিষ্ট ডেজিগনেট ট্ৰাইবুনাল কর্তৃক এই জাতীয় প্ৰতিনিধিত্ব স্বীকৃতি সাপেক্ষে।

আপিলকারীকে এনআরসি কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে প্ৰাপ্ত রিজেকশন অর্ডারের প্ৰত্যয়িত কপি এবং তার প্ৰস্তাবিত মেমো সহ নির্ধারিত ফর্মে দায়ের করতে হবে। আপিল দায়ের করার সহজ উপায় হিসেবে আবেদনকারীদের একটি অনলাইন সহায়তা পোর্টাল সরবরাহ করা হবে। এই অনলাইন পোর্টালটি ইন্টারনেটের মাধ্যমে জনসাধারণের জন্য অ্যাক্সেসযোগ্য হবে। প্ৰতিজন আবেদনকারী পোর্টালে তথ্য পূরণ করতে পারবেন।

এই তথ্য দাখিলের সময় পোর্টাল একটি ফিলড আপ আপিল মেমো ফর্ম উৎপাদন করবে সেই সঙ্গে নির্ধারিত এফটির ঠিকানা দেবে যেখানে আবেদন জমা দেওয়া যাবে। আপিলকারী পূরণ করা আপিল মেমো ফার্ম-এর একটি প্ৰিণ্টআউট পাবেন যাতে একটি অনন্য রেফারেন্স নম্বর(ইউআরএন)থাকবে। আবেদনকারী যে জেলা থেকে আবেদন করেছিলেন পুনরায় সেই জেলা থেকেই আবেদন করতে পারবেন।

এনআরসি কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে রিজেকশন লেটার পাওয়ার পর পোর্টালের মাধ্যমে পাওয়া মুদ্ৰিত আপিল মেমো ফর্ম সহ আপিলকারীকে আপিল সশরীরে জমা দেওয়ার জন্য নির্ধারিত এফটিতে যেতে হবে।

নির্ধারিত এফটি নামছুটদের আপিল পাওয়ার পর একটি স্বীকৃত নম্বর আপিলকারীকে দেবে আপিল প্ৰাপ্তির স্বীকৃতি হিসেবে।

আপনার মামলার নথিভুক্তি এবং শুনানির উদ্দেশ্যে এফটি আরও যাচাইয়ের জন্য আপনাকে অবহিত করবে। অতিরিক্ত হিসেবে স্বীকৃতি নম্বর সহ আবেদনকারীকে একটি এসএমএসও পাঠানো হবে।

আপিল জমা দেওয়ার সময় আবেদনকারীর বায়মেট্ৰিকের বিবরণও নির্ধারিত এফটিতে রাখা হবে-যদি এনআরসি প্ৰক্ৰিয়া চলাকালে তা নেওয়া না হয়ে থাকে।

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ নআরসি ছুট গোর্খাদের আন্দোলনে যাওয়ার হুমকি

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: Leopard caged in Naharani Megha Tea Estate

Next Story