ন্যাশনাল

বিশ্বকাপে স্মিথের প্ৰতি সৌজন্যের জন্য আইসিসি স্পিরিট অফ ক্ৰিকেট অ্যাওয়ার্ড পেলেন কোহলি

কোহলি

 

আইসিসি পুরস্কার ইতিমধ্যেই ঘোষণা করা হয়েছে। ভারতীয় দলের রোহিত শর্মা সারা বছর চমকপ্ৰদ পারফরম্যান্স করায় বছরের ওডিআই খেলোয়াড় হিসেবে পুরস্কৃত হয়েছেন। তাঁরই জাতীয় ক্ৰিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি লন্ডনের কেনিংটন ওভালে ২০১৯-এর ভারত-অস্ট্ৰেলিয়ার বিশ্বকাপ লড়াইয়ে প্ৰতিপক্ষ অস্ট্ৰেলিয়ার প্ৰাক্তন অধিনায়ক স্টিভ স্মিথের প্ৰতি সৌজন্যের জন্য মর্যাদাসম্পন্ন স্পিরিট অফ ক্ৰিকেট পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন।

২০১৮ সালের মার্চে অস্ট্ৰেলিয়ান ক্ৰিকেটকে কাঁপানো কুখ্যাত বল টেম্পারিঙের ঘটনায় জড়িত থাকার জন্য তাঁর এক বছরের নিষেধাজ্ঞার পরে স্মিথকে(ডেভিড ওয়ার্নার সহ)একটা কঠোর সময় পার করতে হয়েছিল। ওই সময় অন্যান্য দেশের ফ্যানরা ৫০ ওভার শোপিচ ইভেন্টে ধারাবাহিকভাবে তাদের উৎসাহ দেওয়ায় ওই কঠোর সময়টা পার করতে পেরেছিলেন তাঁরা। ভারত-অস্ট্ৰেলিয়ার হাইভোল্টেজ ম্যাচের সময় স্মিথের ক্ষেত্ৰে যখন এই ঘটনা ঘটেছিল কোহলি তখন অস্ট্ৰেলিয়ার সমর্থনে এগিয়ে এসেছিলেন। ওই সময় কোহলির ভূমিকার প্ৰশংসা করেছিলেন অনেকে। আইসিসির অফিশিয়াল টুইটার হ্যান্ডলে প্ৰকাশিত একটি ভিডিও এখানে দর্শকদের একথাই স্মরণ করিয়ে দেবে পুরো পর্বটি কীভাবে প্যান করা হয়েছে।

কোহলি ও স্মিথ  উভয়কেই আধুনিক সময়ের সেরা বলে দুজনকে একে অপরের বিরুদ্ধে দাঁড় করেনো হলেও তাঁরা পরস্পরের  প্ৰতি অত্যন্ত  শ্ৰদ্ধাশীল। পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন অস্ট্ৰেলিয়ার বিরুদ্ধে বিশ্বকাপের লড়াইয়ে ভারতের ৩৬ রানে জয়ের পর কোহলি ম্যাচ শেষে এক সাংবাদিক সম্মেলনে বলেছিলেন যে,‘যা ঘটেছিল সেটা অনেক আগেই হয়েছিল। তিনি ফিরে এসেছেন,ভাল খেলার চেষ্টা করছেন। ‘কাউকে এমনভাবে দেখতে ভাল লাগে না। প্ৰতিবার খেলতে নামার সময় কোনও লোককে উত্তাপ অনুভব করতে আপনি কি দেখতে চান না’-বলেছিলেন কোহলি।

 

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ ক্যা,এনআরসির প্ৰতিবাদে শিলিগুড়িতে মমতার পদযাত্ৰা

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: Watch Bhogali Bihu preparation from Guwahati ahead ‘Uruka’ (Night before Magh Bihu)