Begin typing your search above and press return to search.

আমরা একটা নির্ভুল এনআরসি চাইঃ আসু

আমরা একটা নির্ভুল এনআরসি চাইঃ আসু

Sentinel Digital DeskBy : Sentinel Digital Desk

  |  22 Feb 2020 8:34 AM GMT

গুয়াহাটিঃ সারা অসম ছাত্ৰ সংস্থা(আসু)বলেছে,তারা একটা নির্ভুল রাষ্ট্ৰীয় নাগরিক পঞ্জি(এনআরসি)চায়। এনআরসি-র রাজ্য সমন্বয়ক হিতেশ দেবশর্মা চূড়ান্ত এনআরসিতে অযোগ্য ব্যক্তির নাম অন্তর্ভুক্ত হওয়া সম্পর্কে ২০২০-র ১৯ ফেব্ৰুয়ারি সব জেলাশাসক,ডিস্ট্ৰিক্ট রেজিস্ট্ৰার এবং সিটিজেন রেজিস্ট্ৰেশন(ডিআরসিআর)-কে যে চিঠি দিয়েছেন সে ব্যাপারে সাড়া দিতে গিয়ে আসুর সভাপতি দীপাঙ্ক কুমার নাথ শুক্ৰবার বলেন,ছাত্ৰ সংস্থা গোড়া থেকেই বলে আসছিল যে এনআরসি ত্ৰুটিমুক্ত হয়নি। নাথ বলেন,একদিকে অযোগ্য ব্যক্তির নাম যেমন এনআরসিতে ঠাঁই পেয়েছে তেমনি রাজ্যের বহু স্থানীয় মানুষের নাম এই তালিকা থেকে বাদ পড়েছে। এনআরসির রাজ্য সমন্বয়ক শর্মা চিঠিতে যেকথা উল্লেখ করেছেন সেটা ২০১৯-এর ৩১ আগস্ট চূড়ান্ত এনআরসি প্ৰকাশিত হওয়ার পরই তাঁর নজরে এসেছিল। বেশ কিছু ব্যক্তি বিশেষ করে সন্দেহজনক ভোটার,ঘোষিত বিদেশি যাদের বিদেশি ট্ৰাইবুনালে(এফটি)মামলা ঝুলছে তাদের নাম চূড়ান্ত রাষ্ট্ৰীয় নাগরিক পঞ্জিতে অন্তর্ভুক্ত হয়েছে। চিঠিতে বলা হয়েছে এ ধরনের ব্যক্তিদের একটি তালিকা জেলাশাসকরা ইতিমধ্যেই শেয়ার করেছেন। সেইহেতু এনআরসিতে নাম অন্তর্ভুক্তির অযোগ্য এধরনের বাকি ব্যক্তিদের বিস্তারিত শেয়ার করার জন্য জেলাশাসকদের অনুরোধ জানানো হয়েছে। অথচ এর আগে শেয়ার করা তালিকায় এর সমস্ত ব্যক্তিদের নাম এনআরসিতে ঢুকেছে’-উল্লেখ করা হয়েছে চিঠিতে। এনআরসির রাজ্য সমস্বয়ক এই বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে দেখতে জেলাশাসকদের বলেছেন। কারণ এবিষয়ে বিস্তারিত তথ্য পাওয়ার পরই তা রেজিস্ট্ৰার জেনারেল অফ ইন্ডিয়াকে(আরজিআই)রিপোর্ট করতে হবে।

নাথ বলেন,চূড়ান্ত এনআরসি সংশোধনের প্ৰস্তাব রেখে আসু ইতিমধ্যেই সুপ্ৰিমকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছে। আমরা আশা করছি সুপ্ৰিম কোর্ট এই বিষয়টির সমাধানে সঠিক দিশায় এগোবে। বাংলাদেশি মুক্ত একটা নির্ভুল এনআরসি সুনিশ্চিত করতেই আসু সবচেয়ে বেশি অগ্ৰাধিকার দিচ্ছে’-বলেন নাথ।

অন্যান্য খবরের জন্য পড়ুনঃ ছাত্ৰদের ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি উন্নত করার আহ্বান ভেঙ্কাইয়া নাইডুর

অধিক খবরের জন্য ভিডিও দেখুন: AJYCP, Moran Students’ Union and Digboi Unnayan Samiti submits memorandum to Tinsukia DC

Next Story